নোয়াখালীতে ঘুষ নেয়ার অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৩:১৫ পিএম, ০৬ মে ২০২১ | আপডেট: ০৩:১৫ পিএম, ০৬ মে ২০২১

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রেজাউল করিমকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে থানা থেকে প্রত্যাহার করে নোয়াখালী পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) দুপুর ১টায় নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, অভিযুক্ত এসআই মো. রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে তাকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে এবং এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। তাকে নোয়াখালী পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার (৪ মে) রাতে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেনের নির্দেশে অভিযুক্ত রেজাউল হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে এসআই রেজাউল বেগমগঞ্জের চৌমুহনী শহরের পল্লী বিদ্যুতের এক ডিলারের একটি মালবাহী ট্রাক আটক করেন। গাড়িতে থাকা মালামাল অবৈধ বলে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করে তিনি। এক পর্যায়ে ডিলারের কাছ থেকে আড়াই লাখ টাকা ঘুষ আদায় করেন। পরে তার কাছ থেকে আরও টাকা আদায়ের চেষ্টা করেন।

ঘুষ নেয়ার বিষয়টি নোয়াখালীর পুলিশ সুপারকে অবহিত করেন ওই ডিলার। তিনি পুলিশ সুপারকে জানান, কিছুক্ষণের মধ্যে অভিযুক্ত এসআইয়ের অফিসের ড্রয়ার তল্লাশি করলে ওই ঘুষের টাকা পাওয়া যাবে। পরে পুলিশ সুপারের নির্দেশে নোয়াখালী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সোনাইমুড়ী সার্কেল) সাইফুল ইসলাম সোনাইমুড়ী থানায় এসে এসআই রেজাউলের টেবিলের ড্রয়ার খুলে ঘুষের টাকা পেয়ে ওই টাকা জব্দ করেন। এসময় তিনি পুরো ঘটনার ভিডিও ধারণ করেন। এসময় এসআই রেজাউল এ ঘটনার কোনো সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি।

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]