ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঈদের চতুর্থ দিনেও ঘরমুখো মানুষের ভিড়

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৩:৩১ পিএম, ১৭ মে ২০২১

ঈদের চতুর্থ দিনেও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঘরমুখো মানুষের ভিড় রয়েছে। তবে সরকারি বিধিনিষেধে দূর পাল্লার বাস বন্ধ থাকায় মাইক্রোবাস ও পিকআপে গাদাগাদি করে বাড়ি যাচ্ছেন তারা। কিন্তু মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি।

সোমবার (১৭ মে) দুপুর ১টায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার শিমরাইল মোড়ে এমন চিত্র দেখা গেছে।

jagonews24

এমদাদ হোসেন কুমিল্লার লাকসাম যাবেন। সড়কে বাস না থাকায় তিনি মালবাহী পিকআপে করে বাড়ি যাবেন। তিনি জানান, ঈদের আগে ভিড় থাকায় তিনি গ্রামে যেতে পারেননি। এখন বাস না থাকলেও সড়কে ভিড় কম থাকায় গ্রামে যাচ্ছেন।

খোদেজা আক্তার গৌরীপুর যাওয়ার জন্য ঘণ্টাখানেক শিমরাইল মোড়ে অপেক্ষা করেছেন। পরে গন্তব্যে পৌঁছাতে মাইক্রোবাস বেছে নিয়েছেন। তিনি জানান, লোকাল বাসে সোনারগাঁ পর্যন্ত যেতে চেয়েছিলেন। পরে সেখান থেকে আরেক বাসে গৌরীপুর পৌঁছাতেন। কিন্তু বাস না পাওয়ায় মাইক্রোবাস বেছে নিয়েছেন।

jagonews24

রাজিব হোসেন নোয়াখালী যাবেন। বাস বন্ধ থাকায় তিনি পিকআপে উঠেছেন। তিনি বলেন, ‘গাদাগাদি করে যেতে হবে। বাস বন্ধ থাকায় মাইক্রোতে ভাড়া বেশি নিচ্ছে। কিছু করার নেই।’

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের (টিআই) আবদুল করিম বলেন, ‘দূর পাল্লার বাস চলাচল রোধে পুলিশ তৎপর রয়েছে। সড়কে অন্যান্য গাড়ির চাপ কম। যাত্রীরা স্বাস্থ্যবিধি না মানলে তাদেরকে সচেতন করা হচ্ছে।’

এসকে শাওন/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]