টাঙ্গাইলে চাঁদা চেয়ে কারাগারে যুবক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৭:১৯ পিএম, ১৮ মে ২০২১

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে চাঁদাবাজি মামলায় মো. রাসেল ওরফে ভাগ্নে রাসেল (২২) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৮ মে) ভোরে উপজেলার চরকাচপাই গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মো. রাসেল উপজেলার ধুবড়িয়া ইউনিয়নের চরকাচপাই গ্রামের আব্দুল লতিফ মোল্লার ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঢাকায় একটি প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কাজ করে মো. ফজলুল হক (৩৫)। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে চলমান লকডাউনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় তিনি ডহরপাচুরিয়ার বাড়িতে চলে আসেন। এরমধ্যে ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মো. ছরোয়ার হোসেন (২৭), মো. রাসেল মিয়া ওরফে ভাগ্নে রাসেল (২২), মো. নাছির (২৭), মো. সামিম (২৭), মো. আকাশ ( ২৫), মো আসাদ (২২) ও অসিম সিকদার (৩৭) মোবাইলে ফজলুল হকের কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন।

ফজলুল হক টাকা দিতে অপারগতা জানালে ছরোয়ার বাহিনী টাকার জন্য ১৬ মে (রোববার) সকালে তার বাড়িতে গিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দেন। ফজলুল হক নিরুপায় হয়ে নাগরপুর থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করে। মামলার সূত্র ধরে মঙ্গলবার ভোরে বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

এ প্রসঙ্গে নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিসুর রহমান বলেন, চাঁদাবাজির মামলায় রাসেলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]