নোবিপ্রবির সেই কর্মকর্তার মদপানের ছবি ভাইরাল

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৯:৪৩ পিএম, ১৯ জুন ২০২১

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) পরিকল্পনা উন্নয়ন ও ওয়ার্কস ডিপার্টমেন্টের (ডিপিডি) সহকারী পরিচালক জিয়াউর রহমান সম্রাটের (৩২) মদপানের কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যায়, নোবিপ্রবি কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান সম্রাট নির্জন স্থানে বিদেশি মদের বোতল দেখাচ্ছেন এবং তা পান করছেন। ঘরে বসে মদ পান করার ছবিও প্রকাশ হয়।

শনিবার (১৯ জুন) রাত ৮টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন কবিরহাট পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক রায়হান।

তিনি বলেন, মদপানরত ছবিগুলো আটক নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপিডি দফতরের সহকারী পরিচালক জিয়াউর রহমান সম্রাটের।

এদিকে রেদোয়ানুল কবির নামে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী সম্রাটের মদপানের ছবি পোস্ট করে লিখেন, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তি করে তিনি (সম্রাট) দাবি করলেন আইডি হ্যাক হয়েছে। এখন আবার বলবেন না-তো ছবিগুলো এডিট করা?

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. আবুল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবি ও কটূক্তির বিষয়ে অবগত হয়েছে কর্তৃপক্ষ। লিখিত কাগজপত্র পাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি চাকরির বিধিমালা অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে শনিবার দুপুরে অভিযুক্ত নোবিপ্রবি কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান সম্রাটকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) টমাস বড়ুয়া বলেন, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তির অভিযোগের ভিত্তিতে সম্রাটকে ঘোষবাগ এলাকা থেকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। মদপানের ভাইরাল হওয়া ছবির বিষয়টিও তদন্ত করা হচ্ছে।

জিয়াউর রহমান সম্রাট নিজেকে নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীর ছেলে সাবাব চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে পরিচয় দিতেন।

এ বিষয়ে এমপির ছেলে সাবাব চৌধুরীকে বিষয়টি জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ওই রকম কোনো ব্যক্তিগত সহকারী আমার নেই। তবে রাজনীতি করার কারণে অনুসারী থাকতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, সম্রাট কেন, ওবায়দুল কাদের সাহেবের বিরুদ্ধে ওই কটূক্তি যদি আমিও করতাম, তাহলে আমার বাবার যতোই আদরের ছেলে হই না কেন তিনি আমাকেও ছাড় দিতেন না।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দিবাগত রাত ১২টা ৮ মিনিটে সম্রাট তার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে পোস্ট দেন।

এ ব্যাপারে শুক্রবার (১৮ জুন) রাতে কবিরহাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে সম্রাটের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

এদিকে সম্রাটের বিচার দাবিতে শনিবার বিকেলে বিক্ষোভ করেন স্থানীয় নেতাকর্মী ও এলাকাবাসী। এসময় সম্রাটকে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) থেকে বরখাস্তেরও দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

ইকবাল হোসেন মজনু/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]