৭ মাস থেকে দিনে ৩ লিটার দুধ দিচ্ছে বকনা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি কলাপাড়া (পটুয়াখালী)
প্রকাশিত: ০৮:১৫ পিএম, ২০ জুন ২০২১ | আপডেট: ১০:১৩ পিএম, ২০ জুন ২০২১

বকনাটির বয়স মাত্র ৯ মাস। কয়েক মাস আগে মায়ের দুধ খাওয়া ছেড়েছে। অথচ এই বকনাটি কি-না সাত মাস বয়স থেকেই প্রতিদিন দুধ দিচ্ছে ৩ লিটার! ব্যতিক্রমী এ বিস্ময়কর ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম রজপাড়া গ্রামে।

বিস্ময়কর এ বকনাটি একনজর দেখতে ওই বাড়িতে ভিড় করছে অসংখ্য মানুষ। তবে উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের ধারণা, হরমোনজনিত কারণে এমনটা ঘটছে।

গরুর মালিক নুর ইসলাম হাওলাদারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রায় ১৪-১৫ বছর ধরে গরু পালন করে আসছেন তিনি। বর্তমানে তার খামারে বিভিন্ন জাতের ১৩টি গরু। প্রায় আট মাস আগে ফ্রিজিয়ান জাতের একটি গাভি বাছুর প্রসব করে। বাছুরের বয়স সাত মাস হওয়ার পর বকনা বাছুরের স্তন ফোলা দেখতে পান নুর ইসলামের স্ত্রী ফুলবানু।

jagonews24

নুর ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, ‘স্থানীয়দের পরামর্শে বাছুরের স্তন থেকে দুধ সংগ্রহ শুরু করি। প্রথম কয়েক দিন বাছুরটি থেকে এক লিটার দুধ সংগ্রহ করি। এখন দুধের পরিমাণ বেড়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন বাছুরটি থেকে সকালে দুই লিটার এবং বিকেলে এক লিটার করে দুধ সংগ্রহ করতে পারি।’

পরিবারের সদস্যরা এই দুধ পান করছেন। মাঝে মাঝে এই দুধ এলাকার মানুষদের দিচ্ছেন বিনামূল্যে। সাত মাস বয়সের বাছুর থেকে দুধ পেয়ে খুশির শেষ নেই নুর ইসলাম-ফুলবানু দম্পতির।

নুর ইসলামের স্ত্রী ফুলবানু বলেন, ‘আমরা কয়েক বছর ধরে গরু পালন করছি। কিন্তু এমন কখনো দেখিনি আর ভাবিওনি যে আমাদের খামারে এমন একটি গরু হবে। গত ২-৩ আগে থেকেই সে প্রতিদিন ২-৩ লিটার করে দুধ দিচ্ছে। বাছুরটি প্রথম যখন দুধ দেয়া শুরু করে তখন সে নিজেই মায়ের দুধ পান করত।’

jagonews24

কলাপাড়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। হরমোনাল ইমব্যালেন্সের কারণে এটা হতে পারে।’

এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]