চলন্ত ট্রাকে প্রতিবন্ধী নারীকে ‘ধর্ষণ’, চালক-হেলপার আটক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৪৭ পিএম, ২২ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৯:৫৩ পিএম, ২২ জুন ২০২১
প্রতীকী ছবি

ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী একটি চলন্ত ট্রাকে মানসিক ভারসাম্যহীন এক প্রতিবন্ধী (২৫) তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে ট্রাকটির চালক ও তার সহকারীকে (হেলপার) আটক করেছে পুলিশ। জাতীয় জরুরি সহায়তা নম্বর ৯৯৯-এর মাধ্যমে খবর পেয়ে সিরাজগঞ্জ থেকে ট্রাকটি জব্দের পর অভিযুক্তদের আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (২২ জুন) সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের কড্ডার মোড় এলাকা থেকে অভিযুক্তদের আটকের পর ভুক্তভোগী তরুণীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে, ট্রাকটির (বগুড়া ট-১১-২৫১৬) চালক ও হেলপার মিলে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেছে। ভুক্তভোগীর বাড়ি সিরাজগঞ্জে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্তদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

জাগো নিউজকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানার কড্ডা এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট আমির হোসেন।

তিনি জানান, উত্তরবঙ্গগামী ওই ট্রাকটি মঙ্গলবার গাজীপুরের চন্দ্রা এলাকা থেকে দুই যুবককে (পেছনে মালামাল পরিবহনের জায়গায়) ওঠায়। পরে এক ব্যক্তি ওই তরুণীকে ট্রাকে তুলে দিয়ে সিরাজগঞ্জের চান্দাইকোনায় নামিয়ে দিতে বলেন। তরুণীর মানসিক সমস্যা আছে বলেও চালক ও হেলপারকে জানান ওই ব্যক্তি। চালক ও হেলপার ওই তরুণীকে সামনের আসনেই বসতে দেন।

পথিমধ্যে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় যাত্রাবিরতি নেয় ট্রাকটি। তখন পেছনে থাকা দুই যাত্রীকে কোনো কাজ থাকলে সেরে নিতে বলেন চালক। এ সময় তাদের একজনের চোখ লুকিং গ্লাসে পড়লে দেখতে পান, চালক ও হেলপার ওই তরুণীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করছেন। ওই তরুণ বিষয়টি তার মোবাইল ফোনে ভিডিও করার চেষ্টা করলে চালক তাদের নামিয়ে ট্রাকটি নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এরপর ওই তরুণ ৯৯৯-এ কল করে বিষয়টি জানান। সেখান থেকে বিষয়টি সিরাজগঞ্জ পুলিশসহ ট্রাফিক ও হাইওয়ে পুলিশকে জানানো হয়। এরপর পুলিশের তৎপরতায় সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের কড্ডার মোড় এলাকা থেকে ট্রাকটি আটক করা হয়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অভিযুক্ত এবং ভুক্তভোগীকে বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানা পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোসাদ্দেক হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, মেয়েটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তবে সে মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন হওয়ায় নিজ থেকে স্পষ্টভাবে কিছু বলতে পারছে না। পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার জন্য তাকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান ওসি।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/এসএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]