ভেঙে পড়েছে কুড়ি টাকিয়া ব্রিজ, ভোগান্তিতে ৫০ হাজার মানুষ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর
প্রকাশিত: ১২:২৩ পিএম, ০৪ আগস্ট ২০২১

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভেঙে পড়েছে ৫০ বছর আগের তৈরি কুড়ি টাকিয়া ব্রিজ। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন পাল্টাপুর ইউনিয়নের অন্তত ৫০ হাজার মানুষ।

সোমবার (২ আগস্ট) টানা বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ে ব্রিজটি।

জানা গেছে, ইউনিয়নের ২৫/৩০ গ্রামে বাস করেন নানা পেশার মানুষ। বিভিন্ন কাজে প্রতিদিনই তাদের ব্রিজটি পার হয়ে জেলা-উপজেলায় যেতে হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. মোস্তফা জানান, বৃষ্টিতে ভাতগাঁও থেকে সনকা বাজার যাওয়ার রাস্তার ব্রিজটি হঠাৎ ভেঙে পড়ে। ফলে সড়কটিতে দিয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তাই প্রায় ১৭ কিলোমিটার পথ ঘুরে তাদের যেতে হচ্ছে উপজেলা সদরে।

jagonews24

ইউপি চেয়ারম্যান মো. তহিদুল ইসলাম জানান, ইউনিয়নের সঙ্গে জেলা সদরে যাতায়াতের সহজ পথ এ রাস্তাটি। কিন্তু ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় সড়কটি বন্ধ রয়েছে। তাই সড়কটি সচল করতে দ্রুত ব্রিজ নির্মাণ প্রয়োজন। যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক না হলে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে এ এলাকার মানুষ। বিশেষ করে উৎপাদিত কৃষিপণ্য পরিবহনে বিপাকে পড়বেন কৃষক। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে, বিষয়টি জানার পর মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল। পরিদর্শন শেষে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিকল্প কাঠের ব্রিজ নির্মাণের নির্দেশ দেন তিনি। একই সঙ্গে আগামী মাসের মধ্যে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে স্লুইস গেটের আদলে একটি রেগুলেটর নির্মাণের কাজ শুরু হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদের জানান, যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে দ্রুত কাঠের সাঁকো নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বুধবার (৪ আগস্ট) থেকে সাঁকো নির্মাণের কাজ শুরুর কথা রয়েছে।

এমদাদুল হক মিলন/এএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]