ফরিদপুরে ভায়েরাকে হত্যার দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৬:০৭ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

ফরিদপুরে ভায়েরাকে হত্যার দায়ে বাচ্চু খান (২৮) নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই রায়ে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ মো. সেলিম মিয়া এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত বাচ্চু খান ফরিদপুর সদর উপজেলার দুই নম্বর হাবেলি গোপালপুরের ডগ বস্তি এলাকার বাসিন্দা। নিহত শেখ আজাদ তার শ্যালিকার স্বামী।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে লুঙ্গি সেলাই না করায় বাচ্চু খানের সঙ্গে স্ত্রী আঁখি আক্তারের ঝগড়া হয়। এসময় পাশের বাড়িতে থাকা তার শ্যালিকার স্বামী শেখ আজাদ বাড়িতে এসে বিষটি সুরাহা করার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে শেখ আজাদের মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করেন বাচ্চু খান। স্বজনরা আহত শেখ আজাদকে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওই দিন নিহত আজাদের বাবা হারুন শেখ বাদী হয়ে বাচ্চু খানকে একমাত্র আসামি করে ফরিদপুর কোতোয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এলাকাবাসী বাচ্চু খানকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদপুর কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন বাচ্ছু খানকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

জেলা জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) দুলাল চন্দ্র সরকার বলেন, সাক্ষপ্রমাণের ভিত্তিতে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এন কে বি নয়ন/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]