শ্যালকের হাতে প্রাণ গেলো দুলাভাইয়ের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৪:৩৪ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে শাহজাহান (৩৫) নামের এক যুবককে টিউবওয়েলের হাতলে আঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শ্যালকের বিরুদ্ধে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে ময়মনসিংহের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শাহজাহান রাজীবপুর সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ মদনেরচর গ্রামের মৃত শহিদ আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় দশ বছর আগে শাহজাহানের সঙ্গে পাশের মুন্সিপাড়া গ্রামের শরিফা খাতুনের বিয়ে হয়। তাদের দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর জমানো টাকা দিয়ে একটি পাওয়ার টিলার কিনেছিলেন তারা। সেটি দিয়ে অন্যের জমি চাষ করে চার সদস্যের সংসার চলে। সোমবার স্বামী-স্ত্রী মধ্যে ঝগড়া হয়। এসময় শাহজাহান রাগের মাথায় পাওয়ার টিলারটি বিক্রি করার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। বিষয়টি স্ত্রী মোবাইল ফোনে তার ভাই শহিদুল ইসলামকে জানান। বাড়ির পাশের রাস্তায় শহিদুল ইসলাম শাহজাহানকে বাঁধা দেন। এসময় উভয়ের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে পাশের বাড়ি থেকে টিউবওয়েলের হাতল নিয়ে শাহজাহানের মাথায় ও পিঠে আঘাত করেন শহিদুল ইসলাম। এতে শাহজাহান গুরুতর আহত হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে তাকে রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

রাজীবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাহারুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী শরিফা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। ঘাতক শহিদুল পলাতক। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

মাসুদ রানা/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]