বেনাপোল ইমিগ্রেশনে যাত্রীর লাখ টাকা চুরি, যুবক গ্রেফতার

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বেনাপোল (যশোর)
প্রকাশিত: ০৫:৫১ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
চুরির অভিযোগে আটক রয়েল। ছবি: সংগৃহীত

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরে ভারত থেকে আসা মোস্তফা কামাল নামে এক বাংলাদেশির ব্যাগ স্ক্যানিংয়ের সময় এক লাখ টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় রয়েল (৩২) নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

কাস্টমসের সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজে রয়েলকে টাকা চুরি করতে দেখা যায়। তবে আটকের পর তার কাছ থেকে টাকা উদ্ধার করা যায়নি।

আটক রয়েল বেনাপোলে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। তার বাবার নাম মফিজ উদ্দিন। তিনি বেনাপোল কাস্টমসে দালালি করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চেকপোস্টের শ্রমিক নুরনবী শেখ জানান, ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে স্কানিংয়ে ব্যাগ দেন মোস্তফা কামাল নামে ওই যাত্রী। এরপর ওই ব্যাগে টাকা আছে সন্দেহ হলে কাস্টমসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা রবিউল মোর্শেদ ব্যাগটি পুনরায় স্কানিংয়ে দিতে বলেন। ওই সময় পেছন থেকে ব্যাগে থাকা এক লাখ টাকা চুরি করে পকেটে ঢুকিয়ে ফেলে রয়েল। ব্যাগটি পুনরায় স্কানিংয়ে দিলেও তাতে টাকার অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। 

তিনি জানান, এতে যাত্রী মোস্তফা কামালের সন্দেহ হয়। যাত্রী টার্মিনালে এসে ব্যাগটি খুলে কোনো টাকা না পেয়ে কাস্টমসকে অবহিত করেন তিনি। পরে কাস্টমস কর্মকর্তা সিসিটিভি ফুটেজ দেখেন। ভিডিওতে এক যুবককে টাকা নিতে দেখা যায়। ওই ফুটেজ দেখে চোর রয়েলকে শনাক্ত এবং আটক করা হয়।

ভুক্তভোগী মোস্তফা কামাল জানান, চিকিৎসা শেষে ভারত থেকে ফেরার সময় খরচ না হওয়া এক লাখ টাকা তিনি ব্যাগে রেখেছিলেন। স্ক্যানিংয়ে টাকা খোয়ানোর পর বিষয়টি কাস্টমস কর্মকর্তাদের জানালেও তারা কোনো দায়ভার নেবেন না বলে এড়িয়ে যান।

জানতে চাইলে চেকপোস্ট কাস্টমসের রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুস সালাম বলেন, ‘বিষয়টি ঊর্ধতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। তারা এসে যে সিদ্ধান্ত নেবেন, সেই মোতাবেক কাজ করা হবে।’

মো. জামাল হোসেন/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]