নিজের জন্মনিবন্ধনে ভুল থাকায় অফিসের সেবা বন্ধ রাখলেন ইউএনও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ১২:৩২ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তারের জন্মনিবন্ধনে ভুল থাকায় তা সংশোধনের আগ পর্যন্ত জন্মনিবন্ধন সংক্রান্ত সব কার্যক্রম স্থগিত করে নোটিশ জারি করেছেন ইউএনও। অফিসে টানানো ওই নোটিশের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দেয়।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ইউএনওর কার্যালয়ে গিয়ে জন্মনিবন্ধন সংক্রান্ত সেবাপ্রার্থীরা দরজায় টানানো ওই নোটিশ দেখতে পান। এতে লেখা রয়েছে, ‘উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিজ জন্মনিবন্ধনে সমস্যা থাকার কারণে জন্মনিবন্ধন সংক্রান্ত সব কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। উক্ত সমস্যা সমাধান হলে পুনরায় কার্যক্রম শুরু করা হবে। আদেশক্রমে-কর্তৃপক্ষ।’

এমন পরিস্থিতিতে সোমবার সকাল থেকে নিবন্ধন সংশোধন আগ্রহী অনেকেই আবেদন নিয়ে ফিরে গেছেন। এমন ঘটনাকে নাগরিক হয়রানি, বিধিবহির্ভূত সিদ্ধান্ত বলেও অভিযোগ করছেন অনেকে।

কবিরহাট উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নের নাজিম উদ্দিন নামের একজন বলেন, তার ছেলের জন্মনিবন্ধন সনদে নামের বানান ভুল থাকায় সোমবার সকালে তিনি নরোত্তমপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যান। পরে সেখান থেকে একটি ফরম নিয়ে স্বাক্ষর আনতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে ফরমটি জমা দিতে চাইলে দায়িত্বপ্রাপ্ত একজন জানান কক্ষের বাইরে নোটিশ দেওয়া আছে। নোটিশ পড়ে তিনি জানতে পারেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার জন্মনিবন্ধনে ভুল থাকায় সব কার্যক্রম স্থগিত আছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, একজন কর্মকর্তার ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে শত শত লোকের নিবন্ধনে সংশোধন কার্যক্রম কেন বন্ধ থাকবে। বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন তিনি।

একই ইউনিয়নের রাশেদ নামের একজন জানান, নিজের ছেলের জন্মনিবন্ধন সনদে তার (বাবার) নাম ভুল আসার কারণে তিনি দুপুরে তা সংশোধন করতে যান। ওই সময় নোটিশটি দেখে তিনিসহ প্রায় ২০-২২ জন ফরমে স্বাক্ষর ছাড়া ফিরে আসেন। কবে আসতে হবে জানতে চাইলে অফিসের একজন কর্মকর্তা তাকে জানান আগামী ২০ অক্টোবরের পরে যোগাযোগ করবেন।

ইউএনও হাসিনা আক্তার নোটিশ টানানোর বিষয়টি স্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমার নিজের জন্মনিবন্ধন সনদে ভুল রয়েছে। আমারটা সংশোধন হলে তারপর থেকে জন্মনিবন্ধন সংশোধনের ফরমগুলো জমা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে নোয়াখালী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান জানান, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে এ সম্পর্কে খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]