পরিবেশবান্ধব ঘর পেলেন বৃক্ষপ্রেমিক সেই ইদ্রিস আলী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৮:১০ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০২১

পরিবেশবান্ধব কংক্রিট ব্লকের ঘর পেলেন পাবনার বৃক্ষপ্রেমিক ইদ্রিস আলী (৬০)। রোববার (১৭ অক্টোবর) আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে ঘর হস্তান্তর করেন মীর গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাবা-ই জাহির। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে ঘরটি করে দেওয়া হয়েছে।

পাবনায় একজন বৃক্ষপ্রেমিক মানুষ হিসেবেই পরিচিত ইদ্রিস আলী। গত তিন যুগে লাগিয়েছেন চার শতাধিক বটগাছ। যে পরিমাণ তাল, খেজুর ও অন্যান্য গাছ লাগিয়েছেন তার সংখ্যা হবে অর্ধলাখ।

বৃক্ষপ্রেমী ইদ্রিস আলী পাবনার ফরিদপুর উপজেলার চিথুলিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা এবং মৃত বাদশা খানের ছেলে। গাছ লাগানোর নেশায় তার সঞ্চয় বলতে কিছু ছিল না। এজন্য বিয়ে করাও সম্ভব হয়নি। থাকতেন চিথুলিয়া পূর্বপাড়ায় জীর্ণ-শীর্ণ একটি কুটিরে।

তাকে নিয়ে গত ২৩ জুন ‘তিন যুগে বটগাছ লাগিয়েছেন ৪ শতাধিক, অন্যান্য অর্ধলাখ-’ শিরোনামে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাগোনিউজ২৪.কম। অবশেষে তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে মীর গ্রুপ।

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাবা-ই জাহির বলেন, ৪০ বছর ধরে ফরিদপুর উপজেলাসহ পাবনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় বট, তাল, আমগাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির কয়েক লাখ গাছ লাগিয়ে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করেছেন ইদ্রিস আলী। মীর গ্রুপও কনক্রিট ব্লকের ঘর নির্মাণসহ নানা পরিবেশবান্ধব কাজ করে। এজন্য ইদ্রিস আলীকে কনক্রিট ব্লকের তৈরি পরিবেশবান্ধব ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক গোলাম হোসেন, পৌর মেয়র খ ম কামরুজ্জামান মাজেদ, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম কদ্দুস প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার হোসেন, মীর গ্রুপের চিফ রিলেশন অফিসার রফিকুল ইসলাম, বিক্রয় ও বিপণন বিভাগীয় প্রধান সাখাওয়াত হোসেন, অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার ইবনে কাউসার রিয়াদ ও সিনিয়র অফিসার মো. ইউসুফ ও আব্দুল জলিল।

অনুষ্ঠান শুরুর আগে ফিতা কেটে বৃক্ষপ্রেমিক ইদ্রিস আলী তার উপহার পাওয়া ঘরে প্রবেশ করেন।

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]