মন্দিরে হামলাকারীদের অচিরেই আইনের আওতায় আনা হবে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৭:৫৭ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০২১
ফাইল ছবি

 

দেশ যখনই এগিয়ে যায় তখন এ অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য বিশেষ একটি শ্রেণি বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, যারা আমাদের স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেননি এবং প্রত্যক্ষভাবে স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছেন সেই অপশক্তিরা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশকে পাকিস্তানের মতো অকার্যকর ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে গাজীপুর জেলা শহরের সার্কিট হাউজ সংলগ্ন কালেক্টরেট হাইস্কুলের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন মন্ত্রী।

এসময় তিনি আরও বলেন, কুমিল্লায় মন্দিরে হামলার ব্যাপারে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে। কিছু লোক ধরা পড়েছে। আমরা আশা করছি খুব অল্প সময়ের মধ্যে যারা জড়িত জাতি ও বিশ্ববাসী তাদের জানতে পারবে। আমরা আশা করছি এ ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিরা অচিরেই আইনের আওতায় আসবেন। তাদের কাছেই জাতি জানতে পারবে কারা বিভিন্ন মন্দিরে হামলার মদদদাতা, প্রশ্রয়দাতা ও ইন্দনদাতা। প্রকৃত দোষীরা অচিরেই চিহ্নিত হবে।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অব্যবস্থাপনার বিষয়ে তিনি বলেন, এ হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্স, জনবল ও অবকাঠামোর সংকট রয়েছে। তা কাটিয়ে ওঠতে পারলে অচিরেই জনগণ একটি পূর্ণাঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সেবা পাবে।

অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জামিল আহমদ, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) জাকির হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মামুন সরদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) অঞ্জন কুমার সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী গাজীপুর সার্কিট হাউজের তৃতীয় তলার উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন করেন।

আমিনুল ইসলাম/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]