জয়পুরহাটকে বাল্যবিয়ে মুক্ত করতে চায় ‘এক ঘণ্টার এসপি’ মাহিরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি জয়পুরহাট
প্রকাশিত: ০৪:২৫ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২১

জয়পুরহাট জেলাকে ইভটিজিং, ধর্ষণ, বাল্যবিয়ে ও শিশু নির্যাতন মুক্ত করতে চায় এক ঘণ্টার জন্য দায়িত্ব পাওয়া প্রতীকী পুলিশ সুপার (এসপি) নুসরাত মাহিরা। সে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করে এসব বন্ধে সুপারিশও তুলে ধরে। মাহিরার এসব প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের ঘোষণাও দিয়েছে জয়পুরহাট পুলিশ প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ন্যাশনাল চিলড্রেন্স টাস্কফোর্সের (এনসিটিএফ) আয়োজনে গার্লস টেক ওভার অনুষ্ঠানে জয়পুরহাট পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পুলিশ সুপার মাসুম আহম্মেদ ভূঁইয়ার কাছ থেকে প্রতীকীভাবে এক ঘণ্টার দায়িত্ব গ্রহণ করে স্কুলছাত্রী নুসরাত মাহিরা।

নুসরাত মাহিরা জয়পুরহাট পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের একাডেমি নগর এলাকার বাসিন্দা ও জয়পুরহাট সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। পাশাপাশি সে এনসিটিএঢের শিশু সাংবাদিক হিসেবে কাজ করছে।

মাহিরার বাবা হেলাল উদ্দীন মৃধা অগ্রণী ব্যাংক জয়পুরহাট প্রধান শাখার সিনিয়র অফিসার এবং মা রওশন আখতার গৃহিণী। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে মাহিরা সবার ছোট।

jagonews24

বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে এনসিটিএফ জেলা শাখা ও বেসরকারি সংস্থা প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের উদ্যোগে প্রতীকী এসপি’র উপস্থিতিতে এনসিটিএফ’র জেলা উপদেষ্টা আ স ম মোক্তাদির তিতাসের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন জয়পুরহাট পুলিশ সুপার মাসুম আহম্মেদ ভূঁইয়া, এনসিটিএফ’র জেলা সভাপতি কে এম সাজিন, সাধারণ সম্পাদক মেফতাকুল জান্নাত মদিনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তাসমান মোস্তফা প্রমুখ। এছাড়া অনুষ্ঠানে প্রতীকী পুলিশ সুপার নুসরাত মাহিরার মা রওশন আখতারও উপস্থিত ছিলেন।

প্রতীকী দায়িত্ব নিয়ে নুসরাত মাহিরা জয়পুরহাটের পাঁচ উপজেলাকে নারীবান্ধব করতে ও নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানান। এছাড়া ধর্ষকদের প্রকাশ্যে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করার প্রস্তাব দেয় মাহিরা। বাল্যবিয়ে, ধর্ষণ এবং ইভটিজিংমুক্ত নারী ও শিশুবান্ধব জয়পুরহাট জেলা গড়ে তুলতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সে।

মাহিরা বলে, জয়পুরহাট জেলাকে নারী ও শিশুবান্ধব জেলায় রূপান্তরিত করে ধর্ষণ, ইভটিজিংসহ সব ধরনের অপরাধমুক্ত করতে আমি প্রস্তাবনা দিয়েছি। এটি বাস্তবায়ন করতে পারলে দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে জয়পুরহাট জেলা অপরাধমুক্ত ও শান্তিপ্রিয় জেলা হিসেবে রোল মডেলে পরিণত হবে।

jagonews24

জয়পুরহাট পুলিশ সুপার মাসুম আহম্মেদ ভূঁইয়া বলেন, নারীদের বাদ দিয়ে কোনো সমাজের উন্নয়ন সম্ভব নয়। নারীদের নিয়েই আমাদের সমাজ এগিয়ে নিতে হবে। নারীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, অসীম ক্ষমতার অধিকারী নারী। যেসব রাষ্ট্র নারীর ক্ষমতায়ন দিয়েছে তারাই এগিয়ে গেছে।

এ ঘণ্টার পুলিশ সুপার নুসরাত মাহিরার দায়িত্ব শেষে তাকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন জেলা পুলিশ সুপার।

রাশেদুজ্জামান/ইউএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]