চুরি হয়ে গেলো শত বছরের পুরোনো শিবচরের সেই ডেগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২১

শতবর্ষ আগের বিশালাকৃতির একটি পিতলের ডেগ ছিল মাদারীপুরের শিবচরের দত্তপাড়া ইউনিয়নের মগড়া পুকুরপাড় গ্রামের খবির উদ্দিন মৌলভীর বাড়িতে। প্রাচীন এ নিদর্শনটি বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দিনগত মধ্যরাতে চুরি হয়ে গেছে। সকালে খবর পেয়ে দত্তপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

স্থানীয় এক বাড়ির সিসি ক্যামেরার অস্পষ্ট ফুটেজে দেখা গেছে, রাত ৩টার দিকে একটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানে করে কাপড়ে ঢাকা ডেগসাদৃশ্য কিছু একটা নিয়ে যাচ্ছেন তিন থেকে চারজন লোক। ধারণা করা হচ্ছে, ভ্যানে করেই ডেগটি চুরি করে নিয়ে যায় চোরচক্র।

মৌলভী বাড়ির পীর মরহুম খবির উদ্দিন মৌলভীর নাতি হাবিব মুন্সি বলেন, ফজরের নামাজের সময় মসজিদে এসে দেখি ডেগটি নেই। ডেগ যেখানে রাখা ছিল ওই ঘরের একটি খুঁটি ভেঙে ডেগটি কেউ চুরি করে নিয়ে গেছে।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, ডেগটি ১০০ বছর আগের পুরোনো। এটি মসজিদের পাশেই রাখা ছিল। অনেক দূর থেকে অসংখ্য মানুষ ডেগটি দেখতে আসতো।

মৌলভী বাড়ির লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আধ্যাত্মিক শক্তিসম্পন্ন মরহুম মাওলানা খবির উদ্দিন আহমেদ আল কাদেরী প্রায় শত বছর আগে বাগদাদ থেকে ডেগটি এনেছিলেন। তার মাজারের পাশে একটি খোলা ঘরে দর্শনার্থীদের জন্য ডেগটি রাখা ছিল। বিশাল এই ডেগটি দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে অনেক লোকজন আসতো।

ডেগটির ওপর খোদাই করে লেখা ছিল—ডেগ ওরুচে পিরানে পীর সৈয়দ আব্দুল কাদের জিলানী, গোলাম ফকির, শ্রী মৌলবি খবির উদ্দিন কাদেরী, সাং উৎরাইল, সন ১৩১৯। বাকি লেখাটুকু অস্পষ্ট ছিল। এ লেখা দেখেই ধারণা করা হয়, ডেগটি বাগদাদ থেকে আনা হয়েছিল।

maa3

ডেগটির উচ্চতা ছিল ৩ ফুট ৬ ইঞ্চি। এর চারপাশের আয়তন ১৪৮ ইঞ্চি। ডেগের ওপর দিকে কাঁধ বরাবর চার কোণে চারটি রিং রয়েছে। যার ওজন প্রায় চার কেজি করে। ডেগটি স্থানান্তরের জন্য পূর্ণবয়স্ক ১৪ থেকে ১৫ জন লোক লাগতো। এতে কমপক্ষে ৯ থেকে ১০ মণ খিচুড়ি রান্না করা যেতো।

দত্তপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জিয়াউল মাতুব্বর বলেন, ডেগটি প্রাচীন ইতিহাসের তথ্য বহন করে। দূর-দূরান্ত থেকে দর্শনার্থীরা ডেগটি দেখতে আসতেন। প্রাচীন এ ঐতিহ্যটি চুরি হয়ে যাওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে এক ধরনের মন ভারাক্রান্ত অবস্থা বিরাজ করছে। আমরা প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি দ্রুত ডেগটি যেন উদ্ধার করা হয়।

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. মিরাজ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে যায়। আমি নিজেও ঘটনাস্থলে গেছি। এ ঘটনায় মামলা হবে। সকাল থেকেই পুলিশ ডেগ উদ্ধারে কাজ করছে।

একে এম নাসিরুল হক/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]