মেহেরপুরে নৌকা ৩ বিদ্রোহী ৩

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মেহেরপুর
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ এএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১

মেহেরপুরের ৬টি ইউনিয়নের ৩টিতে নৌকা ও ৩টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। সদর উপজেলায় বুড়িপোতা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে শাহজামান চৌধুরী ১২৬৩১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীক নিয়ে রেজাউর রহমান ১১৪১৩ ভোট পেয়েছেন।

কুতুবপুর ইউপিতে আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সেলিম রেজা। ভোট পেয়েছেন ১৬৫৭৪টি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার ইদ্রিস আলী মাস্টার পেয়েছেন ১০৭২৮ ভোট।

গাংনী উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুল আজিজ জানান, বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়াই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে কাজীপুর ইউনিয়নে ৪ জন, ষোলটাকা ইউনিয়নে ৩ জন এবং রাইপুর ইউনিয়নে ৩ জন প্রার্থী ভোটযুদ্ধে অংশ নেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের একজন এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী একজন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী একজন নির্বাচিত হন।

কাজিপুর ইউপির স্বতন্ত্র প্রার্থী আলম হুসাইন ৭০১১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল আলীম পেয়েছেন ছয় হাজার ৫৫৪ ভোট।

ষোলটাকা ইউপিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনোয়ার হোসেন পাশা চার হাজার ৯৩১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী দেলবার হোসেন পেয়েছেন চার হাজার ৭৩১ ভোট। এছাড়াও রাইপুর ইউপির আওয়ামী লীগের প্রার্থী গোলাম সাকলায়েন ছেপু পাঁচ হাজার ২৫৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আলফাজ উদ্দীন কালু পেয়েছেন চার হাজার ১৪৫ ভোট।

অপরদিকে ধানখোলা ইউপিতে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। নির্বাচনে নিরাপত্তার দায়িত্বে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট, র্যাব পুলিশ ও আনছার বাহিনী নিয়োজিত ছিলেন।

আসিফ ইকবাল/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]