টাঙ্গাইল-৭: এমপি হতে চান মা-ছেলেসহ ৯ জন

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)
প্রকাশিত: ০৭:১৩ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপ-নির্বাচনে মা-ছেলেসহ এমপি হতে চান নয়জন। এরই মধ্যে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তারা। আগামী ১৬ জানুয়ারি আসনটিতে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও মির্জাপুর আসনের এমপি মো. একাব্বর হোসেন গত ১৬ নভেম্বর মারা যান। তার মৃত্যুতে এ আসনটি শূন্য হয়।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশনের সংবাদ সম্মেলনে এ তফসিল ঘোষণা করা হয়। আসনটিতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৫ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৭ ডিসেম্বর।

জাতীয় সংসদের এ আসনটির উপ-নির্বাচনে এমপি হতে আওয়ামী লীগের নয়জন নেতা দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। তারা হলেন- প্রয়াত এমপির স্ত্রী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ঝর্ণা হোসেন, তার ছেলে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ব্যারিস্টার তাহরীম হোসেন সীমান্ত, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সভাপতি খান আহমেদ শুভ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মেজর (অব.) খন্দকার আব্দুল হাফিজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল ও তৌফিকুর রহমান তালুকদার রাজিব, মধুমতি ব্যাংকের পরিচালক ও ইবিএস গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক রাফিউর রহমান খান ইউসুফজাই এবং মির্জাপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার বিপ্লব মাহমুদ উজ্জ্বল।

মনোনয়নপ্রত্যাশী খান আহমেদ শুভ বলেন, দলের ত্যাগীদের সবসময় মূল্যায়ন করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আমাকে মনোনয়ন দিলে আশা করি এ আসনটি প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে পারবো।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ বলেন, মনোনয়নপত্র যে কেউই সংগ্রহ করতে পারেন। তবে দল যাকে মনোনয়ন দেবে, সবাই তার পক্ষেই কাজ করবেন বলে তিনি আশা করেন।

এস এম এরশাদ/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]