ঘরে স্ত্রীর মরদেহ, বোরকা পরে পালাতে গিয়ে ধরা খেলেন স্বামী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ঘরে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ রেখে বোরকা পরে পালানোর সময় আব্দুল আলিম নামের এক যুবককে আটক করেছেন স্বজনরা। পরে মামলা দিয়ে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজহারুল ইসলাম সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের নাম নুসরাত জাহান নিশি (১৯)। তিনি উপজেলার ছয়ানি বকশিয়া গ্রামের আব্দুল আলিমের স্ত্রী।

নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, বছর খানেক আগে ছয়ানি বকশিয়া গ্রামের আলাল তালুকদারের ছেলে আব্দুল আলিমের সঙ্গে গোপালপুর উপজেলার কুরমোশিয়া গ্রামের খোরশেদ আলমের মেয়ে নুসরাত জাহান নিশির বিয়ে হয়। বিয়ের সময় এক লাখ ৩৫ হাজার টাকা যৌতুক নেয় আলিম। এরপরও বাবার বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ দিতেন স্ত্রীকে। টাকা নিয়ে আসতে অস্বীকৃতি জানালে নিশির ওপর চলত অমানবিক নির্যাতন।

নিহতের মা সুফিয়া বেগম বলেন, নিশি এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। শনিবার রাতে সে ফোন করে জানায় আলিম তাকে লেখাপড়া করতে দেবেন না। এ কারণে তার পরীক্ষার প্রবেশপত্র ছিঁড়ে ফেলেছেন স্বামী। পরে দিনেই মেয়ে আমার লাশ হয়ে বাড়ি ফিরল।

তিনি আরও বলেন, পরিকল্পিতভাবে নিশিকে হত্যার পর বোরকা পরে পালাতে চেয়েছিল আলিম। এর আগেই আমরা গিয়ে তাকে ধরে ফেলি। পরে এ ঘটনায় রাতেই নিহতের বাবা খোরশেদ আলম বাদী হয়ে মামলা করেন।

এ বিষয়ে ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজহারুল ইসলাম সরকার বলেন, থানায় মামলা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোও হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার আসামি আলিম ও তার বাবা-মাকে আটক করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]