শীতের সময় দিনাজপুরে বাড়ছে তাপমাত্রা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

শীতকাল এখনও না এলেও প্রতিবছর দিনাজপুরে এই সময় দরজায় কড়া নাড়ে শীত। কিন্তু এবার হয়েছে ব্যতিক্রম। শীতের পরিবর্তে উল্টো প্রতিনিয়ত তাপমাত্রা বাড়ছে দিনাজপুরে। আবহাওয়ার এই অবস্থাকে ‘শুভ’ মনে করছেন না স্থানীয়রা। তবে দিনাজপুর আবহাওয়া কার্যালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে তাপমাত্রা বেড়ে গেছে।

আজ ২১ অগ্রহায়ণ। হেমন্তকাল শেষে শীতকাল আসতে আর মাত্র ৯ দিন বাকি। এসময় তাপমাত্রা সাধারণত ১২ থেকে ১৪ ডিগ্রির মধ্যে থাকার কথা। বিগত বছরগুলোতে লু হাওয়া আর হিমেল বাতাসের কারণে দিনাজপুরে বেশ শীত অনুভূত হতো। কিন্তু এবার এর ব্যতিক্রম ঘটেছে। শীততো নেই-ই, উল্টো জেলায় তাপমাত্রা বাড়ছে।

আবহাওয়ার এই পরিবর্তনকে ‘শুভ নয়’ বলে মন্তব্য করছেন অনেকে। জেলার প্রবীণ সাংবাদিক মোর্শেদুর রহমান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লিখেছেন, ‘দিনাজপুরে শীত মৌসুমে তাপমাত্রা বৃদ্ধি, লক্ষণ শুভ নয়। ২৯ নভেম্বর জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরপর প্রতিদিন তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। পর্যায়ক্রমে বাড়তে বাড়তে আজ ৬ ডিসেম্বর বেড়ে হয়েছে ১৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।’

দিনাজপুর আবহাওয়া কার্যালয়ের তথ্য বলছে, ২৯ নভেম্বর শহরে তাপমাত্রা ছিল ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, ৩০ নভেম্বর ১৪.৩ ডিগ্রি, ১ ডিসেম্বর ১৪.৪ ডিগ্রি, ২ ডিসেম্বর ১৪.৫ ডিগ্রি, ৩ ডিসেম্বর ১৬ ডিগ্রি, ৪ ডিসেম্বর ১৬.৫ ডিগ্রি, ৫ ডিসেম্বর ১৬.৬ ডিগ্রি এবং ৬ ডিসেম্বর ১৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

জানতে চাইলে দিনাজপুর আবহাওয়া কার্যালয় ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন বলেন, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রবাবে বায়ুমণ্ডলীয় চাপ ও তাপের মধ্যে তারতম্য সৃষ্টি হয়েছে। যে কারণে বায়ুর গতি ও গতিপথ পরিবর্তিত হয়েছে। ফলে গত কয়েকদিনে তাপমাত্রা কিছুটা বৃদ্ধি পায়।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ দুর্বল হয়ে পড়েছে। আগামী দু তিনদিনের মধ্যে তাপমাত্র কমতে শুরু করবে এবং শীত বাড়বে ।

এমদাদুল হক মিলন/এসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]