‘মানবতা’ নেই মানবতার দেওয়ালে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৫৯ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০২২

রাস্তা-ফুটওভার ব্রিজে বেড়েছে বাস্তুহীন মানুষের সংখ্যা। শীতে তাদের প্রয়োজন এক টুকরো গরম পোশাক। মানবতার দেওয়ালে তাকিয়ে থাকেন তারা। কিন্তু সে দেওয়ালে নেই মানবিকতার চিহ্ন মাত্রও।

সরেজমিনে দেখা যায়, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুল গোল চত্বরে রয়েছে একটি মানবতার দেওয়াল। সে দেওয়ালে লাগানো রয়েছে নানান রকম পোস্টার। দুই বছর আগে শাহেদ ওয়ালী নামের এক যুবক গড়ে তোলেন মানবতার এ দেওয়াল। মাসখানেক পরে স্থানীয় সামাজিকতার মতো দেওয়াল থেকেও চলে যায় মানবতা। দেওয়ালে ‘আপনার অপ্রয়োজনীয় কাপড় এখানে রেখে যান, প্রয়োজনীয় কাপড় নিয়ে যান’ লিখে সেখানে অসহায়, সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য কাপড় ঝুলিয়ে রাখা হতো। কিন্তু বর্তমানে মানবতার দেওয়ালখানা পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম বলেন, ‘শুরুতে কিছু থাকলেও এখন আর কেউ এখানে কাপড় রাখেন না। দেওয়ার চেয়ে নেওয়ার লোক অনেক বেশি। শুরুতে বেশ কাপড় রাখা থাকতো। ধীরে ধীরে কমতে শুরু করে। অনেক দিন এমনিতেই পড়ে আছে মানবতার এ দেওয়ালটি।’

উদ্যোক্তা শাহেদ ওয়ালী বলেন, ‘উত্তরাঞ্চলের প্রবেশপথ হাটিকুমরুল গোল চত্বর। দেশের প্রায় ২২ জেলার মানুষের চলাচল এখান দিয়ে। গুরুত্বপূর্ণ জনবহুল স্থান এটি। অন্যান্য স্থানের চেয়ে এখানে বাস্তুহীনের সংখ্যা বেশি। তাদের জন্য প্রায় দুই বছর আগে একক চেষ্টায় এ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মানবতার দেওয়াল স্থাপন করে কিছু কাপড় রাখি। পড়ালেখার জন্য শহরে আসায় মানবতার দেওয়ালের দিকে খেয়াল রাখতে পারি না।

এ বিষয়ে হাটিকুমরুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হেদায়েতুল আলম (রেজা) বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই, আপনার কাছ থেকেই শুনলাম। যতো দ্রুত সম্ভব মানবতার দেওয়াল ও আশপাশ পরিষ্কার করে দেবো।’

আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]