মাদারীপুরে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ-ভাঙচুর, আহত অর্ধশত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৮:০৫ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২২
দেশীয় অস্ত্রহাতে কয়েকজন

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট বন্দরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। ভাঙচুর করা হয় ১০টি দোকান। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে শংকরদির পাড় ও পূর্বসরমঙ্গল গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়। এতে পুলিশসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছেন। তাদের রাজৈর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শংকরদীরপাড় গ্রামের মৃত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত শেখের মেয়ে পপির (৩৫) সঙ্গে ও পূর্ব সরমঙ্গল গ্রামের রশিদ খার (৬৫) কথা কাটাকাটি হয়। পরে উপস্থিত লোকজন ঘটনাটি মীমাংসা করে দেন। এর জের ধরে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পপির ভাইসহ শংকরদীরপাড় গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে রশিদ খা ও তার লোকজনের আবার কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

jagonews24

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দুই গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল ব্রিজ এলাকায় সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এ সময় প্রায় ১০টি দোকান ঘর ভাঙচুর করা হয়।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সাদিক জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ কে এম নাসিরুল হক/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]