জনপ্রতিনিধির উচিত জনগণের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা: পলক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৬:৩৩ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২২
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

দেশের ৪৯১টি উপজেলা দুর্নীতিমুক্ত হলে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

জনগণকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আমরা জনগণের চাকর। আপনাদের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের বেতন হয়। আমাদের গাড়ির তেল হয়। আমাদের মতো জনপ্রতিনিধির উচিত জনগণের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী। ২০২১-২২ অর্থবছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর) কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন ধর্মীয় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ডিও বিতরণ উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সিংড়ায় কোনো ব্যবসায়ীকে চাঁদা দিতে হয় না বলেও দাবি করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, বাড়ি নির্মাণ করতে চাঁদা দিতে হয় না। চাকরি নিতে কোনো ঘুস দিতে হয় না। চাঁদাবাজির কোনো অভিযোগ এলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শান্তিপূর্ণ, আধুনিক ও মানবিক সিংড়া গড়ে তুলতে চাই। এজন্য সবার সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

jagonews24

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দীর্ঘ ৩৮ বছর অবহেলিত ছিল চলনবিলের মানুষ। বিদ্যুৎ, রাস্তা ও শান্তিহীন ছিল সিংড়া। যোগাযোগবিচ্ছিন্ন এলাকা ছিল। বিএনপি-জামায়াত নেতাদের বাড়ি বাড়ি ধরনা ধরে সার নিতে হতো। তেল-সারের জন্য জীবন দিতে হতো। এখন তেল-সারের জন্য জীবন দিতে হয় না। কৃষকের বাড়ি বাড়ি সার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। সিংড়ায় ১ হাজার ১০০ গৃহহীনকে ঘর দেওয়া হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এম এম সামিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুল হাসান কামরান, সিংড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আল-আমিন সরকার, সিংড়া ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ২০টি ধর্মীয় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১০ লাখ ৫১ হাজার টাকার ডিও বিতরণ করা হয়।

রেজাউল করিম রেজা/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]