ইতালি যাওয়ার স্বপ্ন অধরাই থেকে গেলো জয়ের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ এএম, ২৯ জানুয়ারি ২০২২

অবৈধভাবে সাগর পাড়ি গিয়ে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে মাদারীপুরের এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে। ঝড়ো বাতাসে তিউনিউসিয়ার ভূমধ্যসাগরে থাকা অবস্থায় প্রচণ্ড ঠান্ডায় মারা যান মাদারীপুরের তরুণ জয় তালুকদার।

এ সময় গুরুতর অসুস্থ হন একই এলাকার আরো ৬ জন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ২২ জানুয়ারি অবৈধভাবে সমুদ্রপথে লিবিয়া হয়ে ইঞ্জিনচালিত নৌকায় ইতালির উদ্দেশে রওনা হন মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর গ্রামের জয়সহ বেশ কয়েকজন। তিউনিসিয়ার ভূমধ্যসাগরে গেলে প্রবল ঝড়ো বাতাসের পর টানা ৬ ঘণ্টা বৃষ্টিপাতের কবলে পড়েন তারা। এ সময় নৌকার চালক দিক হারিয়ে ফেলেন। পরে ইতালির পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে সবাইকে উদ্ধার করে।

এ সময় অসুস্থ বেশ কয়েকজনকে হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। এর আগেই প্রচণ্ড ঠান্ডায় মারা যান জয়। একই এলাকার মিন্টু, প্রদীপ, টুটুল, তন্ময়, রিয়াজ ও সবুজ এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানিয়েছেন তাদের স্বজনরা।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার বড়াইলবাড়ী গ্রামের সোনমিয়া খানের ছেলে জামাল খান এলাকার যুবকদের ইতালি নেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রত্যেক পরিবারের কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা করে নেন। এই ঘটনার পর অভিযুক্ত দালাল জামাল খানের বাড়িতে গিয়েও তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। দীর্ঘদিন ধরে জামাল মানবপাচারের সঙ্গে জড়িত বলেও এলাকায় বেশ গুঞ্জন রয়েছে।

নিহত জয়ের বাবা পলাশ তালুকদার বলেন, ধার- দেনা করে সাত লাখ টাকা দিয়েছি জামালকে। আমার ছেলে মারা গেলো অথচ জামাল একটু খোঁজও নিলো না।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, পরিবারের কাছ থেকে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাসিরুল হক/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]