একসঙ্গে বিষপানে প্রেমিক-প্রেমিকার মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ১২:২৪ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০২২
প্রতীকী ছবি

পিরোজপুরের নাজিরপুরে একসঙ্গে বিষপানে প্রেমিক যুগলের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) দিনগত রাতে উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের উত্তর কলারদোয়ানিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত মোসা. মারিয়া খানম (১৮) ওই গ্রামের মো. রফিকুল ইসলামের মেয়ে ও মুগারঝোর দাখিল মাদরাসার দশম শ্রেণির ছাত্রী, ইয়াছিন তালুকদার (১৯) নেছারবাদ উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের উলিবুনিয়া গ্রামের মো. হাফিজ তালুকদারের ছেলে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, মারিয়ার বাবা বাড়িতে থাকেন না। মা শামীমা নাছরিন মেয়ের প্রেমের বাধা হয়ে দাঁড়ান। এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ডেকে নিয়ে মেয়েকে গালমন্দ করেন। এর জের ধরে দুজনই একসঙ্গে বিষপান করে।

ইয়াছিনের বাবা হাফিজ তালুকদার বলেন, ‘তিন-চার দিন আগে ইয়াছিন তার ফুফু ছাবিনা ইয়াছমিনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফুফাতো ভাই ছাব্বিরের সঙ্গে ঘুমাতে দোকানে যায় সে। কিন্তু গরমের কথা বলে দোকান থেকে বেরিয়ে আসে। দিনগত রাত ৩টার দিকে বোন ছাবিনা ফোন করে জানায়, ইয়াছিন ও বাড়ির পাশের এক মেয়ে এক সঙ্গে বিষ পান করেছে।

মারিয়া খানমের মা শামীমা নাছরিন বলেন, ‘আমার মেয়ে রাতের খাবার খেয়ে ১০টার দিকে তার কক্ষে ঘুমাতে যায়। রাত ২টার দিকে বাড়ির সামনের কবর স্থান থেকে বাঁচাও বাঁচাও বলে ডাক চিৎকার পাই। পরে সেখানে গিয়ে মারিয়া ও ইয়াছিনকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার অসিত মিস্ত্রী জাগো নিউজকে বলেন, মারিয়াকে মৃত্যু অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আর আজ ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইয়াছিনের মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে নাজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির জাগো নিউজকে বলেন, বিষপানে দুজনের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে তাদের পরিবারের কেউ মুখ খুলছে না। তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]