কুসিক নির্বাচন: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হচ্ছেন দুই কাউন্সিলর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ১২:৩৬ পিএম, ১৮ মে ২০২২

কুমিল্লা সিটি কর্পেরশেন (কুসিক) নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হচ্ছেন দুজন। কুমিল্লা সিটি কর্পরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদের মধ্যে একজন ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সৈয়দ রায়হান আহমেদ ও অপরজন ১০ নম্বর ওয়ার্ডে মঞ্জুর কাদের মণি। তাদের ওয়ার্ডে তারা দুজন ছাড়া অন্যকেউ মনোনয়নপত্র জমা দেননি। যাচাই-বাছাইয়ে তাদের মনোনয়নপত্র বৈধ হলে দুইজনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কাউন্সিলর হবেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দুই প্রার্থীর মধ্যে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর সৈয়দ রায়হান আহমেদ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি। গত বছরের ৩১ আগস্ট ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রায়হানের বাবা সৈয়দ আবির আহমেদ মারা যান। ২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে তিনি অংশ নিয়ে বিপুল ভোটে জয়ী হন। এ নিয়ে তিনি দ্বিতীয়বার কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

সৈয়দ রায়হান আহমেদ বলেন, বাবার অসমাপ্ত কিছু কাজ আছে, সেগুলো শেষ করতে চাই। আমি স্থানীয় সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আরফানুল হকসহ দলের নেতা-কর্মী ও এলাকার বাসিন্দাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। ওয়ার্ড বাসীর প্রত্যাশা পূরণে আমি চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।

অপরদিকে ১০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মঞ্জুর কাদের মণি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি ২০১২ ও ২০১৭ সালে টানা দুবার এই ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। জনপ্রিয় এ কাউন্সিলরের ওয়ার্ডে তিনি ছাড়া আর কেউ প্রার্থী হননি। মনোনয়ন বাছাইয়ে টিকলে তিনিও বিনা ভোটে কাউন্সিলর হবেন। এ নিয়ে তিনি তৃতীয়বার কাউন্সিলর হতে যাচ্ছেন।

মঞ্জুর কাদের বলেন, গত দুই মেয়াদে আমার এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। মানুষের ভালোবাসাও পেয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও আমি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি। মঙ্গলবার রাতে জেনেছি, আমি একক প্রার্থী।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী বলেন, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে মঙ্গলবার (১৭ মে) মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষদিনে মেয়র পদে ৬ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এদের মধ্যে দলীয় প্রার্থী দুইজন, বাকি চারজন স্বতন্ত্র প্রার্থী। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১২০ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১৯ মে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে।

এ সিটির ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে মোট ভোটার ২ লাখ ২৭ হাজার ৭৯২ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ১১ হাজার ৬০০ ও নারী ১ লাখ ১৬ হাজার ১৯১ জন।

জাহিদ পাটোয়ারী/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]