ভাড়া নিয়ে দ্বন্দ্বে চালককে মারধর, রাঙ্গামাটিতে অটোরিকশা বন্ধ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাঙ্গামাটি
প্রকাশিত: ১২:১৫ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২২

রাঙ্গামাটি জেলা শহরের একমাত্র অভ্যন্তরীণ গণপরিবহন অকটেনচালিত অটোরিকশা। হঠাৎ তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় অটোরিকশার চালকদের সঙ্গে যাত্রীদের বাগবিতণ্ডার জেরে বন্ধ রাখা হয়েছে শহরের একমাত্র অভ্যন্তরীণ এ পরিবহন। এতে শনিবার সকাল থেকে যাত্রীদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

ভেদভেদী থেকে বনরুপা যাওয়া জন্য অপেক্ষমাণ যাত্রী ফিরোজা বেগম জানান, আমি মেয়ের বাসায় যাওয়ার জন্য বের হয়েছি। কিন্তু অটোরিকশা বন্ধ থাকায় এখন হেঁটে যেতে হচ্ছে। বয়স্ক মানুষ এখন কি এত হাঁটতে পারি?

আরেক যাত্রী রাসেল বলেন, আমি বনরুপায় একটি দোকানে চাকরি করি। সকালে দোকানে যাওয়ার জন্য বের হয়েছি। অনেকক্ষণ পর একটি অটোরিকশা পেয়েছি, তাও ১২ টাকার ভাড়া ৩০ টাকা দিতে হয়েছে। তেলের দাম বৃদ্ধিতে ভাড়া বাড়তে পারে, কিন্তু এত বেশি!

jagonews24

অটোরিকশা বন্ধ থাকার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রাঙ্গামাটি জেলা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু জানান, হঠাৎ তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় আমরা ভাড়া নিয়ে হিমশিম খাচ্ছি। এরমধ্যে আমাদের দুইজন চালককে মেরেছে যাত্রীরা। জসিম নামের একজনকে মেরেছে কলেজ গেইট এলাকায় অন্যজন শফিউলকে মেরেছে রিজার্ভ বাজার এলাকায়।

jagonews24

শ্রমিক নেতা আরও বলেন, আমরা পৌরসভার মেয়রের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন এখনো প্রজ্ঞাপন আসেনি। আমাদেরকে নির্দিষ্ট ভাড়া নির্ধারণ করে না দিলে আমরা অটোরিকশা চালাবো না এবং আমাদের চালকদের ওপর হামলার বিচার করতে হবে প্রশাসনকে।

রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, রোববার বেলা ১১টায় মিটিংয়ের আহ্বান করেছি, মিটিং থেকে ভাড়া নির্ধারণ করা হবে। আর সবাইকে ধৈর্য ধরতে হবে, প্রজ্ঞাপন এলে আমরা সে অনুসারে ব্যবস্থা নেব।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]