এক মাঠে একই সময়ে দু’পক্ষের খেলার আয়োজন, বন্ধ করলো প্রশাসন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ১১:২১ এএম, ০৭ আগস্ট ২০২২

অডিও শুনুন

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে এক মাঠে একই সময়ে ফুটবল খেলার আয়োজন দু’পক্ষ। খবর পেয়ে খেলা বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শনিবার (৬ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার সহস্রাইল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্কুলমাঠে শনিবার শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ জামালের জন্মদিন উপলক্ষে এলাকার যুব সমাজের উদ্যোগে কাজী আবুল কালাম স্মৃতি ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা ছিল। এ খেলা বন্ধ করতে স্থানীয় আরেকটি পক্ষ একই সময় একই মাঠে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করে।

এক মাঠে একই সময়ে দুই গ্রুপ খেলার আয়োজন করার সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রেজাউল করিম ও বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব মাঠে উপস্থিত হয়ে খেলাটি বন্ধ করে দেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মো. সিদ্দীক খান জানান, স্থানীয় যুব সমাজের উদ্যোগে কাজী আবুল কালাম স্মৃতি ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা ছিল। খেলাটি বন্ধ করতে আরেকটি পক্ষ একই সময়ে একই মাঠে খেলার আয়োজন করে। পাল্টাপাল্টি ফুটবল খেলার আয়োজন করায় প্রশাসন খেলাটি বন্ধ করে দেয়।

fa-(2)

বোয়ালমারী থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব জাগো নিউজকে বলেন, একই খেলার মাঠে দুই গ্রুপ খেলার আয়োজন করে। আমরা জানতে পারি খেলাকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের সংঘর্ষ হতে পারে। তাই সংঘর্ষ ঠেকাতে পুলিশ ফোর্স নিয়ে খেলাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে শেখর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, এলাকায় দুটি পক্ষ একই সময়ে একই স্থানে ফুটবল খেলার আয়োজন করায় উত্তেজনা ও সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দেয়। ফলে প্রশাসন খেলাটি বন্ধ করে দেয়।

ইউএনও মো. রেজাউল করিম জাগো নিউজকে বলেন, শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে খেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়। না হয় বড় ধরনের সংঘর্ষ হতে পারতো। উভয়পক্ষই অতিসত্বর সম্মিলিতভাবে বসে আলোচনাপূর্বক সম্ভাব্য ফুটবল খেলা অনুষ্ঠান সংক্রান্ত বিষয়ে একটি গ্রহণযোগ্য সিদ্ধান্তে এসে প্রশাসনকে জানাবে।

এন কে বি নয়ন/এসজে/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।