কুড়িগ্রামে ১০০ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে এলপি গ্যাস

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২২
বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে এলপি গ্যাস সিলিন্ডার

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম (এলপি) গ্যাসে। কুড়িগ্রামে নির্ধারিত দামের চেয়ে প্রতি সিলিন্ডার গ্যাস ১০০ টাকা বেশিতে কিনতে হচ্ছে। এতে বিপাকে পড়েছেন গ্রাহকরা।

কুড়িগ্রামের বেশ কয়েকটি গ্যাস ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সরকার ঘোষিত জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার আগের দিন পর্যন্ত প্রতি সিলিন্ডার গ্যাসের দাম ছিল ১২৫০ টাকা। স্থানভেদে যদিও ৫-১০ টাকা দামের পার্থক্য ছিল। সেই গ্যাস এখন ব্যবসায়ীদেরই কিনতে হচ্ছে ১২৯০ টাকায় আর গ্রাহকদের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে ১৩৫০ টাকা।

পৌর শহরের ক্রেতা নমিতা রানী বলেন, ‘গ্যাস সিলিন্ডার নিতে এসে দাম শুনে যেন মাথায় বাজ পড়ছে। প্রতিমাসে এভাবে গ্যাসের দাম বাড়লে রান্না করার সাধ মিটে যাবে। কেন না বাজারে সব জিনিসের বাড়তি দাম। এমনিতে আমাদের মতো নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোকে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এর ওপর গ্যাসের বাড়তি দাম। এভাবে চলতে থাকলে গ্যাসের ব্যবহার বন্ধ করা ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না।’

jagonews24

গ্যাস ব্যবহারকারী রোস্তম আলী বলেন, ‘তেল না হয় বাইরের দেশ থেকে আনতে হয়। কিন্তু গ্যাস তো দেশের সম্পদ। আমাদের দেশেই গ্যাসের খনি। দেশেই উৎপাদনের পরও যদি এত দামে গ্যাস কিনতে হয় তাহলে জনগণ না খেয়ে মরবে। সরকারের উচিত অন্তত গ্যাসের দামটা সহনীয় পর্যায়ে রাখা।’

গ্যাস ব্যবসায়ী মুন ট্রেডার্সের আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ‘জ্বালানি তেলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গ্যাস সিলিন্ডারের দাম। গত সপ্তাহে ১২.৯ কেজি ওজনের একটি সিলিন্ডার বিক্রি দাম ছিল ১২৫০ টাকা। এখন একই সিলিন্ডার আমাদেরই কিনতে হচ্ছে ১২৯০ টাকা দিয়ে। জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার কারণে পরিবহন খরচ বেশি পড়ছে। সব খরচ মিলে ১৩৫০ টাকা বিক্রি করা ছাড়া আমাদের উপায় নেই।’

পৌর শহরের গ্যাস বিক্রেতা আসলাম তালুকদার বলেন, ‘দফায় দফায় গ্যাসের দাম বেড়েই চলছে। গতমাসেও জ্বালানি গ্যাসের দাম একটু কমেছিল। হঠাৎ করে সরকার জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করায় পরিবহন খরচটাও বেড়েছে। ফলে সব সেক্টরে কম বেশি এর প্রভাব পড়েছে।’

এসজে/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।