ফরিদপুরের শিকলবন্দি মিলনের পাশে ইউএনও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৯:৩৫ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০২২

জাগো নিউজসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর ১২ বছর ধরে শিকলবন্দি মিলনের পাশে দাঁড়িয়েছেন ফরিদপুরের সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোছা. তাছলিমা আকতার। মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে এই তিনি সরেজমিনে মিলনের বাড়ি পরিদর্শনে যান।

সেখানে মিলনকে শিকলবন্দি দেখে হতভম্ব হয়ে পড়েন ইউএনও। এসময় মিলনকে শিকল থেকে মুক্ত করার জন্য তার বাবা-মাকে বলেন। কিন্তু দৌড়ে পালিয়ে যাবে বা মানুষের ওপর হামলা করতে পারে সে ভয়ে তাকে ছাড়া সম্ভব হয়নি।

ফরিদপুরের শিকলবন্দি মিলনের পাশে ইউএনও

এসময় ইউএনও মিলনের চিকিৎসাবাবদ আর্থিক সহায়তা দেন। এছাড়া পাবনা মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে সহায়তা করবেন বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি। এসময় যদুনন্দী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিক মোল্লা, সালথা প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আজিজুর রহমানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে ইউএনও মোছা. তাছলিমা আকতার জাগো নিউজকে বলেন, জাগো নিউজের প্রতিবেদনটি আমার চোখে পড়ে। পরে তার বাড়িতে গিয়ে দেখি ছেলেটিকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। বাচ্চা ছেলেটিকে আমি শিকল থেকে মুক্ত করতে বলেছি তার বাবা-মাকে। আমি সাময়িকভাবে কিছু আর্থিক সহায়তা করেছি। ছেলেটির বাবা-মাকে পরামর্শ দিয়েছি, পাবনা হেমায়েতপুর মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য। পরবর্তীকালে চিকিৎসার সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হবে।

এন কে বি নয়ন/এমআরআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।