৬ বিষয়ে পরীক্ষার পর সংশোধন হলো শিপনের প্রবেশপত্র

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র হলেও কর্তৃপক্ষের ভুলে মানবিক বিভাগের প্রবেশপত্র নিয়ে ছয়টি বিষয়ে পরীক্ষা দিয়েছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর মো. শিপন নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী। অবশেষে তাকে সংশোধিত প্রবেশপত্র দেওয়া হয়েছে। ওই প্রবেশপত্রে সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রসায়ন পরীক্ষায় অংশ নেয় শিপন।

মো. শিপন উপজেলার জে এন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি দিচ্ছে। সে পৌরসভার মো. শাহিন মন্ডলের ছেলে। তার বাবা একজন কাপড় ব্যবসায়ী। শিপনের পরীক্ষার কেন্দ্র পড়েছে কুমারখালী সরকারি বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

দুপুরে তার প্রবেশপত্র সংশোধনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমারখালী সরকারি বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব মো. আবুল কাশেম।

তিনি বলেন, ‘রোল নম্বর অনুযায়ী সিটপ্ল্যান করা হয়। প্রথম পাঁচদিন আবশ্যিক বিষয়গুলোর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় প্রবেশপত্রের ভুল টের পাওয়া যায়নি। পরে বিভাগভিত্তিক পরীক্ষার আগের রাতে ভুল ধরা পড়ে এবং ইউএনও স্যারের মাধ্যমে ভুল প্রবেশপত্রে পদার্থবিজ্ঞান পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। এখন প্রবেশপত্র সংশোধন করা হয়েছে। সোমবার সংশোধিত প্রবেশপত্রে রসায়ন পরীক্ষা দিয়েছে ওই ছাত্র।’

ভুল প্রবেশপত্রে পাঁচটি বিষয়ে পরীক্ষা দিলেও শিক্ষার্থী, শিক্ষক, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, অভিভাবক কেউই টের পাননি। হঠাৎ পদার্থ বিজ্ঞান পরীক্ষার আগের রাতে বিষয়টি টের পায় ওই পরীক্ষার্থী। পরে সে দুশ্চিন্তায় পড়ে যায়। বিষয়টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জানালে তারা মানবিক বিষয়ে পরীক্ষার পরামর্শ দেন। এতে ওই শিক্ষার্থী আরও ভেঙে পড়ে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে শনিবার পদার্থবিজ্ঞান পরীক্ষা দেয় সে।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যশোর বোর্ড থেকে প্রবেশপত্রের ভুল সংশোধন করে এনে দেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে পরীক্ষার্থী মো. শিপন বলেন, ‘আমার ভুল প্রবেশপত্রটি সংশোধন করা হয়েছে। আজ আমি বিজ্ঞান বিভাগের প্রবেশপত্রে রসায়ন পরীক্ষা দিয়েছি। এখন আর চিন্তা হচ্ছে না। আমি খুব খুশি। বিষয়টি সংশোধন করে দেওয়ায় ইউএনও স্যারকে ধন্যবাদ।’

জে এন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মকছেদ আলী বলেন, ‘টেকনিক্যাল কারণে শিপনের প্রবেশপত্র ভুল হয়েছিল। রোববার সেটি সংশোধন করা হয়েছে। এখন আর সমস্যা নেই।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিতান কুমার মন্ডল বলেন, শিপন সোমবার বিজ্ঞান বিভাগের প্রবেশপত্রে পরীক্ষা দিয়েছে। এসএসসি পরীক্ষা ছাত্রজীবনের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা। এই ভালো কাজে সহযোগিতা করতে পেরে আমি আনন্দিত।

আল-মামুন সাগর/এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।