বিপদ কাটলো ফুটবলার আঁখির পরিবারে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:২২ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাতীয় নারী ফুটবল দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় আঁখি খাতুনকে বেশ আগেই তিন শতক জমি উপহার দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু বিভিন্ন জটিলতায় সে সময়ের দেওয়া জমি পায়নি তার পরিবার।

চলতি বছরের ৪ জুন সিরাজগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তার পরিবারের কাছে পুনরায় আট শতক জমির দলিল হস্তান্তর করেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার। তবে এবারও জমি নিয়ে ঝামেলায় পড়তে হয় তাদের। মকরম প্রামাণিক নামের এক ব্যক্তি আদালতে মামলা করলে ওই জমির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়।

অবশেষে মামলাটি প্রত্যাহার করে নিয়েছে বাদীপক্ষ। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মকরম প্রামাণিক সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুন নাহারের আদালতে মামলাটি প্রত্যাহারের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক মামলাটি খারিজ করে দেন। একদিকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের জয় নিয়ে ফেরা, অন্যদিকে জমির জটিলতা কেটে যাওয়ায় খুশির বন্যা বইছে ডিফেন্ডার আঁখির পরিবারে।

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরিকুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, আঁখির জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত ৮ শতাংশ জমির একটি প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়। স্থানীয় মকরম প্রামাণিক নামের এক ব্যক্তি ওই বরাদ্দকৃত জমি তাদের দখলে রয়েছে দাবি করে আদালতে মামলা করেছিলেন। তবে মামলার তফসিলে তিনি খতিয়ান উল্লেখ বা জমিটির মালিকানা দাবি করেননি। বাদীপক্ষ প্রত্যাহারের আবেদন করায় মামলাটি খারিজ হয়ে গেছে। বর্তমানে ফুটবলার আঁখিকে বরাদ্দ দেওয়া ওই জমিটি এখন সম্পূর্ণ নিষ্কণ্টক।

জমি নিয়ে জটিলতা দূর হওয়ায় খুশি আঁখির বাবা আক্তার হোসেন। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, মামলাটি খারিজ হওয়ার কথা শুনে বিপদমুক্ত হয়েছি। আদালতপাড়ায় কখনো দৌড়াদৌড়ি করা হয়নি। মামলা থেকে সব সময় মুক্ত থাকতে চাই।

এসজে/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।