সোনারগাঁয়ে শিশু অপহরণের অভিযোগে তরুণকে গণপিটুনি

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৮:২২ এএম, ০৭ অক্টোবর ২০২২

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকা থেকে শিশু অপহরণের অভিযোগে মো. ইমন (২২) নামে এক তরুণকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।

বুধবার (৫ অক্টোবর) রাতে ওই তরুণকে গণধোলাই দিয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশের হাতে দেওয়া হয়।

এর আগে বুধবার সকালে পাঁচ বছর বয়সী ইসান নামে এক শিশুকে অপহরণের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। পরে অপহৃত ওই শিশুকে বুধবার বিকেলে ফতুল্লার মাসদাইর মসজিদ এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা ইয়াসিন মিয়া বাদী হয়ে বুধবার রাতে সোনারগাঁ থানায় মামলা করেছেন।

অপহরণকারী ওই তরুণকে পুলিশ সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠিয়েছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, উপজেলার সোনাপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ভাড়াটিয়া ইয়াসিন মিয়ার পাঁচ বছর বয়সী ছেলে ইসানকে বুধবার সকালে বাড়ির সামনে খেলা করার মুখোরোচক চাটনি কিনে দেওয়ার প্রলোভনে ইমন অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে দুপুরে ফতুল্লার মাসদাইর মসজিদ এলাকায় একটি অটোরিকশায় শিশুটি কান্না করছিল। এসময় এলাকাবাসী জিজ্ঞাসা করলে ইমন অসংলগ্ন কথাবার্তা বললে তাদের সন্দেহ হয়। পরে তাকে আটক করে গণপিটুনি দেওয়া হয়।

এদিকে, স্বজনরা বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে বিকেলে ৪টার দিকে অপহৃত শিশু ইসানকে ফতুল্লার মাসদাইর মসজিদ এলাকায় স্থানীয়দের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা করে। এছাড়া অপহরণকারী ইমনকে পুলিশে দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আহসানউল্লাহ বলেন, অপহৃত শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। অপহরণকারীকে গ্রেফতারের পর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

রাশেদুল ইসলাম রাজু/এমআরআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।