বগুড়ায় ইন্টার্ন চিকিৎসককে ঝাল-মুড়ি বিক্রেতার ছুরিকাঘাত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৯:৫০ পিএম, ২৩ নভেম্বর ২০২২

বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক ফাহিম রহমানকে (২৮) ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে হাসপাতালের ২ নম্বর গেটে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

ফাহিম রহমান ইন্টার্ন ২৫তম ব্যাচের চিকিৎসক ও ঢাকার সবুজবাগের নুর মোহাম্মাদের ছেলে। তিনি বর্তমানে শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয়রা জানান, ইন্টার্ন চিকিৎসক ফাহিম বুধবার বিকেলে তার বন্ধুদের সঙ্গে শজিমেক হাসপাতালের ২ নম্বর গেটে আড্ডা দিচ্ছিলেন। পরে তারা ফরিদ ব্যাপারী ও তার ছেলে শাকিল হোসেনের দোকানে ঝাল-মুড়ি খেতে যান। একপর্যায়ে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে দোকানি শাকিলের সঙ্গে চিকিৎসক ফাহিমের বাগবিতণ্ডা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাকিল তার হাতে থাকা পেঁয়াজ কাটার চাকু দিয়ে ফাহিমের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যান।

শজিমেক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চিকিৎসক ফাহিমের সহপাঠী মোফাজ্জল হোসেন রনি বলেন, তুচ্ছ ঘটনায় ফাহিমকে ছুরিকাহত করা হয়েছে। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে।

বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম জানান, এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে একজনকে আটক করা হয়েছে। অপরজনকে আটকের চেষ্টা চলছে।

এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।