ট্রেন যাওয়ার পর ভেঙে গেলো রেললাইন, ১২ ঘণ্টা পর স্বাভাবিক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৫:০৭ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২২

বগুড়ায় আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস পার হওয়ার সময় দুই ফুট রেললাইন ভেঙে যায়৷ এতে করে এক লাইন দিয়ে প্রায় ১২ ঘণ্টা রেল চলাচল বন্ধ ছিল। পরে বুধবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে ভেঙে যাওয়া অংশ মেরামত করে।

এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে বগুড়া রেলস্টেশন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রাতে রংপুর এক্সপ্রেস চলে যাওয়ার পর বগুড়া রেললাইন স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় এক নম্বর রেলপথের দুই ফুট লাইন ভেঙে যায়। এতে রংপুর এক্সপ্রেসের কোনো সমস্যা হয়নি। বিষয়টি পাশের বস্তির লোকজনের নজরে এলে রাতেই তারা কর্তৃপক্ষকে অবগত করে। পরে রেলওয়ে প্রকৌশল অধিদপ্তর বুধবার সকাল থেকে শুরু করে দুপুর ১২টা পর্যন্ত রেলের ভেঙে যাওয়া অংশে মেরামত করে। এসময়ের মধ্যে বগুড়া রেলওয়ে স্টেশন আসা সবগুলো ট্রেন দুই নম্বর রেলপথ দিয়ে চলাচল করে৷

রেলওয়ের উপ সহকারী প্রকৌশলী মাজেদুর রহমান জানান, রাতে প্রায় দুই ফুট রেললাইন ভেঙে যায়। ট্রেনের ওয়েটের কারণে বা যতটুকু ফেটেছে সেটি আমরা ঠিক করেছি। এটা রাতে স্টেশন মাস্টার আমাদের জানিয়েছিলেন। খবর পেয়ে সকালে মেরামত করা হয়।

রেল মেরামতকারী অতিরিক্ত মেট আব্দুস সাত্তার জানান, প্রায় দুই ফুট পরিমাণ রেল ভেঙেছে। মরিচা পড়ার কারণে এমনটা হয়ে থাকে পারে। এখন এক নম্বর রেললাইন স্বাভাবিক আছে।

হাড্ডিপট্টি বস্তি এলাকার নূর বানু জানান, রাতে বড় ট্রেন যাওয়ার পরে রেললাইন ভেঙে যায়। তখনই আমরা স্টেশন মাস্টারের কাছে খবর পৌঁছে দেই।

বগুড়া রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার সাজেদুর রহমান বলেন, রাত ১২টা ৮মিনিটে ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন রংপুর এক্সপ্রেস বগুড়া স্টেশন ছেড়ে যায়। ট্রেনটি যাওয়ার সময় স্টেশনের হাড্ডিপট্টি এলাকার সামনে লাইন ভেঙে যায়। ওই সময় রেললাইনের পাশে থাকা বস্তির কয়েকজনের কাছে খবর পেয়ে প্রকৌশল বিভাগ জানানো হয়। এরপর থেকে রেল চলাচলের জন্য বিকল্প পথ হিসেবে দুই নম্বর লাইন ব্যবহার করা হয়।

আরএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।