কালকিনিতে যুবককে কুপিয়ে জখম, কাউন্সিলরের নামে অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৫:২৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

মাদারীপুরের কালকিনিতে মো. সাহেদ হোসেন (৩২) নামের এক যুবককে কুপিয়ে জখমের অভিযোগে স্থানীয় কাউন্সিলরসহ নয়জনকে আসামি করে একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে কালকিনি থানায় মামলা করেনে ওই যুবক। এর আগে মঙ্গলবার রাতে পৌরশহরের চরফতে বাহাদুর গ্রামে তাকে কুপিয়ে জখম করা হয়।

আরও পড়ুন: মাদারীপুরে দুই যুবককে কুপিয়ে জখম 

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, ওই গ্রামের মো. আব্দুল খালেকের ছেলে মো. সাহেদ হোসেনের সঙ্গে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে মঙ্গলবার রাতে সাহেদ হোসেনকে একই গ্রামের মো. মাহাবুলের বাড়ির সামনে পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে দেশিয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আরও পড়ুন: ‘মীমাংসার জন্য ডেকে’ ৫ যুবককে কুপিয়ে জখম 

এদিকে এ ঘটনায় পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ নয় জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সাহেদ হোসেন।

এ বিষয়ে আহত সাহেদ হোসেন বলেন, কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে হত্যার জন্য আমার ওপর হামলা চালিয়েছেন। আমি এর বিচার চাই।

অভিযুক্ত কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বলেন, কিছুদিন পূর্বে আমার ছেলের ওপর বিএনপির লোকজন নিয়ে হামলা চালিয়েছিল সাহেদ। কিন্তু আমি এ হামলা করিনি। আমার ওপর মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামীম হোসেন বলেন, হামলার ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আয়শা সিদ্দিকা আকাশী/আরএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।