এলাকাভেদে ব্যবসা সেবা দেবে এনআরবিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৭ এএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৮
এলাকাভেদে ব্যবসা সেবা দেবে এনআরবিসি

দেশের একেক এলাকা একেক রকম। ব্যবসা-বাণিজ্যের দিক থেকেও এলাকা ভাগ রয়েছে। তাই এখন থেকে যে এলাকায় যে ব্যবসা বা যে সেবার চাহিদা থাকবে সে এলাকার জন্য সেই ধরনের সেবা চালু করবে এনআরবি কমার্শিয়াল (এনআরবিসি) ব্যাংক।

ব্যাংকটির চেয়ারম্যান তমাল এস এম পারভেজ শনিবার এই তথ্য জানিয়েছেন। এদিন রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে আয়োজিত ব্যাংকটির ব্যবস্থাপকদের বার্ষিক ব্যবসায় সম্মেলনে তিনি এই তথ্য জানান।

চেয়ারম্যান বলেন, চলতি বছর থেকে এলাকা অনুযায়ী ব্যাংকের ব্যবসা ও সেবা প্রসারে গুরুত্ব দেয়া হবে। একই সঙ্গে কর্পোরেট সোস্যাল রেসপনসিবিলিটির (সিএসআর) ক্ষেত্রেও এটা প্রযোজ্য হবে। ব্রাঞ্চগুলো নিজ নিজ এলাকার চাহিদা অনুযায়ী সিএসআর কার্যক্রম পরিচালনা করবে। এখন থেকে কোনো একটি বিশেষ এলাকা বা বিষয়ে সিএসআর কার্যক্রম হবে না। সব ব্রাঞ্চ এই সুবিধা ভোগ করবে।

এ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম, অডিট কমিটির চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মিয়া আরজু, রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আদনান ইমাম, পরিচালক ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী এবং ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কাজী মো. তালহা প্রমুখ।

সম্মেলনে চলতি বছরে ব্যাংকের ব্যবসায়িক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ, সার্বিক ব্যবসার উন্নয়ন তথা ঋণের গুনগত মান উন্নয়নসহ বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হয়। দেশের বিভিন্ন ব্রাঞ্চের গত বছরের কার্যক্রমের ওপর ভিত্তি করে তিনটি ক্যাটাগরিতে মোট নয়টি ব্রাঞ্চকে পুরস্কৃত করা হয়।

ব্রাঞ্চগুলো হলো- গোল্ড ক্যাটাগরিতে এডি ব্রাঞ্চ চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ, নন এডি ক্যাটাগরিতে রাজশাহী এবং গ্রামীণ ব্রাঞ্চ হিসেবে নারায়ণগঞ্জের মুগরাপাড়া। সিলভার ক্যাটাগরিতে এডি ব্রাঞ্চ হিসেবে রাজধানীর হাতিরপুল, নন এডি ক্যাটাগরিতে চট্টগ্রামের জুবলী এবং গ্রামীণ ক্যাটাগরিতে হবিগঞ্জের নবীনগর। ব্রোঞ্চ ক্যাটাগরিতে এডি ব্রাঞ্চ হিসেবে রাজধানীর উত্তরা, নন এডি ক্যাটাগরিতে বগুড়া এবং গ্রামীণ ব্রাঞ্চ হিসেবে নারায়ণগঞ্জের পঞ্চবটি।

ব্যাংকের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্য থেকে সেরা কর্মকর্তার পুরস্কার পান চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) হারুন-উর-রশিদ।

এসআই/জেডএ