টেক্সটাইল খাতে জাপানকে বিনিয়োগের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫৭ পিএম, ২৬ জুলাই ২০১৮

জাপানকে টেক্সটাইল খাতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

জাপান সফররত বাণিজ্যমন্ত্রী (২৫ জুলাই স্থানীয় সময় বিকেলে) ওসাকার গভর্নর ইচহিরো মাতসুইয়ের সঙ্গে বৈঠকের সময় এ আহ্বান জানান। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, ওসাকা টেক্সটাইল হাব হিসেবে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক পরিচিত। ওসাকার টেক্সটাইল ব্যবসায়ীরা এতে বেশ দক্ষ। ওসাকার টেক্সটাইল খাতের বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে অধিক লাভবান হবেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে টেক্সটাইল সেক্টরে অনেক শিক্ষিত, দক্ষ ও সহজলভ্য জনবল রয়েছে, বিনিয়োগের সব সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে। ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে অতি অল্প সময়ে প্রয়োজনীয় সব সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সরকার বিদেশি বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশ ও বিশেষ সুবিধা নিশ্চিত করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের বিভিন্ন উপযুক্ত এলাকায় ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোন গড়ে তোলা হচ্ছে। আগ্রহী দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এসব ইকোনমিক জোন বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে। এগুলোর উন্নয়ন ও বাস্তবায়ন কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। সরকার আইন প্রনয়ন করে বিনিযোগকারীদের স্বার্থ সুরক্ষা করেছে।

মন্ত্রী বলেন, জাপানের ওসাকা নগরীতে অনেক ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প রয়েছে। ওসাকার ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে লাভবান হবেন। বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত স্থান। ইতোমধ্যে বিশ্বের অনেক বড় বড় বিনিয়োগকারী বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য এগিয়ে এসেছে। ওসাকার বিনিয়োগকারীরাও এ সুযোগ নিতে পারেন।

এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী ওসাকার গভর্নরকে টেক্সটাইল সেক্টরের বিনিয়োগকারীদের নিয়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালে গভর্নর ইচহিরো মাতসুই বাংলাদেশ সফরের আগ্রহ প্রকাশ করেন। বাণিজ্যমন্ত্রী ওসাকার গভর্নরকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনীর জাপানি ভাষায় অনুবাদ করা একটি কপি হস্তান্তর করেন।

বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতেমা, এফবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমইয়ের প্রেসিডেন্ট মো. সিদ্দিকুর রহমান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ওবায়দুল আজম উপস্থিত ছিলেন।

এমইউএইচ/এএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :