মান কমছে রুপির : পর্যটকদের পোয়াবারো

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২৩ এএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপির দরপতন অব্যাহত রয়েছে। এখন এক ডলারে ৭৩ রুপি পাওয়া যাচ্ছে। এটি হচ্ছে ডলারের বিপরীতে রুপির রেকর্ড পরিমাণ সর্বনিম্ন দর। এতে করে ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্যে যে প্রভাবই পড়ুক না কেন ফুরফুরে মেজাজে আছেন এদেশীয় পর্যটকরা। কারণ ডলারের বিপরীতে এত রুপি আগে কখনো পাওয়া যায়নি।

ইন্টারনেট মানি এক্সচেঞ্জ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) এক মার্কিন ডলারে বিনিময়ে ভারতীয় মুদ্রার মূল্য এসে দাঁড়ায় ৭২ দশমিক ৬৬ রুপি। যা এক মাস আগেও ছিল ৬৯ দশমিক ১০ রুপি। আর এক বছর আগে ছিল ৬৩ দশমিক ৯৮ রুপি। এ হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে রুপির মান কমেছে ৫ শতাংশ আর বছরের ব্যবধানে কমেছে প্রায় সাড়ে ১৩ শতাংশ। অর্থাৎ, এখন ডলার কম খরচ করে বেশি রুপি পাওয়া যাচ্ছে।

এদিকে বাংলাদেশি মুদ্রার বিপরীতে ভারতীয় রুপির মানও ধারাবাহিক কমছে। ১১ সেপ্টেম্বরের তথ্য অনুযায়ী, প্রতি রুপিতে পাওয়া যাচ্ছে ১ টাকা ১৬ পয়সা। এক বছর আগেও প্রতি রুপি পেতে বাংলাদেশি মুদ্রায় ব্যয় করতে হতো ১ টাকা ২৮ পয়সা।

হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন ডলারের বাড়তি চাহিদা ও অপরিশোধিত তেলের মূল্য বাড়ায় ফলেই রুপির মূল্যমানের এ দশা বলে দাবি করছেন ফরেক্স ট্রেডাররা।

বিষয়টি নিয়ে এখনও জরুরি অবস্থা জারি করার মতো পরিস্থিতি হয়নি বলেই মনে করছেন ভারতের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ প্রসঙ্গে দেশটির ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি সুভাষ চন্দ্র গর্গ জানিয়েছেন, ভারতীয় মুদ্রার এই দরপতনে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

তবে বিষয়টি নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে খোদ ভারতের কেন্দ্র সরকার। এ নিয়ে দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় ও ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের মধ্যে আলোচনাও শুরু হয়েছে। প্রয়োজনে রিজার্ভ ব্যাংক ভারতের শেয়ারবাজরে হস্তক্ষেপ করবে বলে হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এদিকে রুপির মানহ্রসে ভ্রমণকারীদের জন্য সুখবর বলছেন বাংলাদেশের পর্যটনখাত সংশ্লিষ্টরা। তারা জানান, ডলারের বিপরীতে রুপির মান কমায় এখন ওই দেশে ভ্রমণের খরচ কমেছে। প্রতিবছরই রেকর্ড পরিমাণ পর্যটক বাংলাদেশ থেকে ভারত ঘুরতে যান। এখন চলছে ভারত ভ্রমণের সুবর্ণ সময়। এ সুযোগ অনেকে গ্রহণ করছেন।

ভৌগোলিকভাবে বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম বৈচিত্র্যময় দেশ ভারত। যার আয়তন প্রায় ৩৩ লাখ বর্গকিলোমিটার, যেখানে ১৩২ কোটি মানুষের বসবাস। মরুভূমি থেকে বরফ সবই আছে ভারতে। আয়তন ও বৈচিত্র্যের কারণে বিদেশ থেকেও নিয়মিত প্রচুর পর্যটক আসেন ভারতে। প্রতিবছরই এ সংখ্যা বাড়ছে। ২০১৭ সালে দেশটিতে প্রথমবারের মতো এক কোটি বিদেশি পর্যটক ভ্রমণ করেন। যা ২০১৬ সালে ছিল ৮৮ লাখ। বিদেশি পর্যটকদের সারিতে প্রথম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশিরা।

ভারতের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে মোট ২০ লাখ বাংলাদেশি ভারতে সফর করেছে। তার মানে দেশটির বিদেশি পর্যটকদের এক-পঞ্চমাংশ বাংলাদেশি। ২০১৩ সালে যেখানে সোয়া পাঁচ লাখ বাংলাদেশি ভারত সফর করেছিল, সেখানে ২০১৭ সালে তা ২০ লাখ।

সম্প্রতি ভারত সরকার বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করেছে। ডলারের মানও রুপির তুলনায় বেড়েছে। সব মিলিয়ে আগামীতে বাংলাদেশিদের ভারতে ভ্রমণ আরও বাড়বে।

এসআই/এমএ/বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]