আমদানি হচ্ছে সাড়ে ৩ লাখ মেট্রিক টন ডিএপি সার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ০৮ মে ২০১৯
ফাইল ছবি

রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সৌদি আরব ও বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএডিসি) মশ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় ৩ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১৩১৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে কৃষি মন্ত্রণালয়।

বুধবার (৮ মে) সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এতে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের দেশে কৃষি কাজে ব্যবহারের জন্য ডিএপি সার প্রয়োজন হয়। এ সারের অধিকাংশই আমরা সৌদি আরব থেকে আমদানি করি। তারই ধারাবাহিকতায় রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সৌদি আরব ও বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় ৩ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১৩১৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।’

dsp-2

তিনি বলেন, এছাড়াও আজকের বৈঠকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের শেরেবাংলা নগরে ‘সদর দফতর ও জেলা কার্যালয় স্থাপনের মাধ্যমে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর শক্তিশালীকরণ (প্রথম সংশোধিত)’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের দুইটি বেইজমেন্টসহ ১৩ তলা ভবন নির্মণ করার ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ প্রকল্পের পয়ঃপ্রণালী, পানি সরবরাহ ও অভ্যন্তরীণ বিদ্যুৎ সংযোগসহ অন্যান্য নির্মাণ কাজ করা হবে। এতে ব্যয় হবে ১১৭ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে কাজ পেয়েছে বিশ্বাস ট্রেডিং অ্যান্ড কন্সট্রাকশন। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

২০২০ শিক্ষাবর্ষের মাধ্যমিক বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন এবং এসএসসি ভোকেশনাল স্তরের বিনামূল্যে বিতরণযোগ্য পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণের জন্য ১৮ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন কাগজ ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন। এতে সরকারের ব্যয় হবে ১৭২ কোটি ২৮ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

এমইউএইচ/এমবিআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :