সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা জানতে আনোয়ারায় হচ্ছে টাইডাল স্টেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৫৫ পিএম, ২০ আগস্ট ২০১৯

সমুদ্র পৃষ্ঠের রিয়েল টাইম উচ্চতা যথাযথভাবে নিরূপণ করতে চট্টগ্রামের আনোয়ারায় হচ্ছে টাইডাল স্টেশন। মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) সকালে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

‘জেএনএসএস করস-এর নেটওয়ার্ক পরিধি সম্প্রসারণ এবং টাইডাল স্টেশন আধুনিকরণ’ নামের প্রকল্পটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বাংলাদেশ জরিপ অধিদফতর বাস্তবায়ন করবে। এতে ব্যয় হবে ১১৪ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকার দেবে ১৭ কোটি ৯০ লাখ এবং বাকি ৯৬ কোটি ৯৯ লাখ টাকা অনুদান দেবে জাপান সরকারের উন্নয়ন সংস্থা জাইকা। চলতি বছরের জুলাই থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে।

জরিপ অধিদফতর সূত্র জানায়, ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, রংপুর ও মৌলভীবাজারে ৬টি জিএনএসএস কোরস রয়েছে। এর চাহিদা বাড়লেও জিএনএসএস কোর্স নেটওয়ার্ক না থাকায় এই সেবা যথাযথভাবে দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এ ছাড়া দেশের সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা নির্ধারণের জন্য বর্তমানে চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটিতে একটি টাইডাল স্টেশন রয়েছে। যা দিয়ে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা যথাযথভাবে নির্ধারণ করা সম্ভব হচ্ছে না। আরও একটি টাইডাল স্টেশন স্থাপন করলে স্থাপন করলে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা যথাযথভাবে নির্ধারণ করা সম্ভব হবে।

প্রকল্প সূত্র জানায়, এর আওতায় দেশের সব জেলায় জিএনএসএস কোর্স এবং চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় টাইডাল স্টেশন নির্মাণ করা হবে। এতে করে জিএনএসএস কোর্স নেটওয়ার্ক ভূ-পৃষ্ঠের কম্পন যথাযথভাবে পর্যবেক্ষণ এবং ভবিষ্যতে দুর্যোগের বিষয়ে পূর্বাভাস প্রদানে সক্ষম হবে। এই প্রকল্পের আওতায় জিএনএসএস কোর্স ৭৫টি এবং টাইডাল এক্সেসরিজ ২ সেট কেনা হবে। সেই সঙ্গে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি, সরঞ্জাম, পূর্ত কাজ, সফটওয়ার ইত্যাদি কেনা হবে।

এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এটা রিয়েল টাইমে ভূ-তাত্ত্বিক মুভমেন্ট, জোয়ার-ভাটার মুভমেন্ট ইত্যাদি রিয়েল টাইমে, অর্থাৎ এই মুহূর্তে রংপুরে, খাগড়াছড়িতে, দাকোপের অবস্থা জানা যাবে। ওই মেশিন নিজেই গ্রহণ করবে এবং বলে দেবে যে, দাকোপে একটা ভূ-কম্পন হচ্ছে। অথবা কুড়িগ্রামে পানির উচ্চতা বেড়ে যাচ্ছে। এটা ইতোমধ্যেই আমাদের আছে, এটাকে আরও আধুনিকায়ন করা হবে।’

দেশের অবকাঠামো পরিকল্পনা/ উন্নয়ন কার্যক্রম ও ভূমি ব্যবস্থাপনার জন্য নির্ভুল ডাটাবেইজ তৈরি করতে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে জরিপ করা হবে। টেক্টোনিক প্লেটের মুভমেন্ট এবং ভূমির অবনমন পর্যবেক্ষণ ও পরিমাপের মাধ্যমে সম্ভাব্য ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণে সহায়তা করা এবং সমুদ্র উচ্চতার রিয়েল টাইম পর্যবেক্ষণ ও ডাটাবেইজ প্রণয়ন করা হবে এই প্রকল্পের আওতায়।

পিডি/এমআরএম