প্রশিক্ষক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে এফবিসিসিআই


প্রকাশিত: ১২:৪২ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৬

সার্ক অঞ্চলে অশুল্ক বাধা ও অশুল্ক বিষয়ক মেজার্স এনভায়রনমেন্ট বিষয়ে প্রশিক্ষক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)। সার্ক ট্রেড প্রমোশন নেটওয়ার্ক (টিপিএন) এবং জার্মানির জিটিজেডের সহযোগিতায় এফবিসিসিআই ‘ট্রেনিং ফর ট্রেইনার্স’ শীর্ষক এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে সার্ক অঞ্চলে বিদ্যমান অশুল্ক বাধা ও অশুল্ক বিষয়ক মেজার্স সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা লাভ। প্রশিক্ষণার্থীরা  এ থেকে সার্ক দেশগুলোর মধ্যে বিভিন্ন বাণিজ্য চুক্তি এবং দেশগুলোতে অশুল্ক বাধার বিভিন্ন ধরণ সম্পর্কে জানতে পারবেন। রোববার এফবিসিসিআই ভবনে ৪ দিনব্যাপী অনুষ্ঠেয় এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন এফবিসিসিআইয়ের মহাসচিব মীর শাহাবুদ্দিন মোহাম্মদ। প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ভারতের এনআই-এমএস-এর অধ্যাপক ইনেলি মুরালী দরশন ও অধ্যাপক গুটি জয়কার রাও।

প্রশিক্ষণে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন, এসএমই ফাউন্ডেশন, বিসিক, বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউট, বিএসটিআই, মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ (বিআইডিএস) ও এফবিসিসিআইসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।  
 
ভারত সরকারের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অন্তর্গত ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পবিষয়ক জাতীয় ইনস্টিটিউট (এনআই-এমএসএমই) এ প্রশিক্ষণের মডিউল প্রণয়ন করেছে। একই ধরনের ‘ট্রেনিং ফর ট্রেইনার্স’ কর্মসূচি শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর ভারত ও পাকিস্তানে তা আয়োজন করা হবে। এফবিসিসিআইও আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ‘ট্রেনিং ফর ট্রেইনার্স’-এর দ্বিতীয় কর্মসূচির আয়োজন করবে।

এসআই/জেডএইচ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :