প্রাথমিকে ৪৩২০ জন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২১ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৬:৩৭ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮
প্রাথমিকে ৪৩২০ জন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ হবে

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪ হাজার ৩শ’ ২০ জন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। ইতোমধ্যে সরকারি কর্ম কমিশনে (পিএসসি) চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। পিএসসির মাধ্যমে দ্বিতীয়বারের মতো নিয়োগ দেয়া হবে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, দেশে বর্তমানে ৬৩ হাজার ৪১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৫ হাজারেরও বেশি স্কুলে প্রধান শিক্ষক পদ শূন্য রয়েছে। গত বছর শেষের দিকে পিএসসির মধ্যমে ৮৯৮ জন প্রধান শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করা হলেও বিভিন্ন জটিলতার কারণে ৪৭০ জনকে নিয়োগ দেয়া সম্ভব হয়েছে। এসব নিয়োগ হওয়ার পরও সারাদেশে প্রায় ১০ হাজার প্রধান শিক্ষক পদ শূন্য রয়েছে।

এ পদে নিয়োগের জন্য সম্প্রতি পিএসসিতে নতুন করে ৪ হাজার ৩শ’ ২০ জনের চাহিদা প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। নীতিমালা অনুযায়ী এ পদে পিএসসির মাধ্যমে ৩৫ শতাংশ ও পদোন্নতির মাধ্যমে ৬৫ শতাংশ শূন্য পদে নিয়োগ দিতে হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সুপারিশ অনুযায়ী নতুন করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে পিএসসি। প্রধান শিক্ষকরা দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদের মর্যাদা প্রাপ্ত হবেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মনজুর কাদির জাগো নিউজকে বলেন, ‘সহকারী শিক্ষকদের মধ্য থেকে পদোন্নতি দিয়ে ৬৫ শতাংশ এবং বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে বাকি ৩৫ শতাংশ নিয়োগ দেয়া হবে। সেই লক্ষ্যে আমরা প্রধান শিক্ষক নিয়োগে পিএসসির কাছে চাহিদাপত্র পাঠিয়েছি। তাদের সুপারিশ পেলেই আমরা এ নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করবো।’

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য থাকায় পাঠদান বিঘ্নিত হচ্ছিল। এ কারণে সহকারী শিক্ষকদের চলতি দায়িত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

এমএইচএম/এসএইচএস/আইআই