বাবা থাকলে বোধহয় জীবনটা অন্যরকম হতো : ক্যাটরিনা

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫২ এএম, ০১ জুন ২০১৯

ক্যাটরিনা কাইফ জানিয়েছেন, ছোটবেলায় বাবাকে তিনি একেবারেই কাছে পাননি। বাবা মায়ের বিচ্ছেদ তার জীবনে একটা বড় প্রভাব ফেলেছে।

সম্প্রতি ফিল্মফেয়ারের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে এমনটি জানালেন তিনি।

ক্যাটরিনা কাইফ বলেন, ‘পাশে পিতৃস্থানীয় কেউ না থাকলে প্রতিটি মেয়েরই শূন্যতা আর সংবেদনশীল অনুভূতি হয়। আমি চাই ভবিষ্যতে আমার সন্তানেরা যেন বাবা-মা দু’জনকেই একসঙ্গে পায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘যতবার আমি কোনও সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি আমার মনে হয়েছে বাবার মতো কেউ, যিনি আনকন্ডিশনালি ভালোবাসতে পারবেন, তেমন কেউ পাশে থাকলে হয়তো খানিক সুরাহা হতো।’

সাধারণত ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খুব বেশি কথা বলেন না ক্যাটরিনা কাইফ। কিন্তু সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল এ কারণে তিনি কী জীবনে কোনও শক্ত ধাঁচের পুরুষকে সঙ্গী হিসেবে পেতে চান? উত্তরে ক্যাটরিনা বলেন, ‘আমার মনে হয় না তেমন কোনও চেষ্টা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে করেছি। তবে লোকে বলে সত্যিকারের বন্ধুর সংখ্যা যদি আঙুলে গোনা যায় তা হলে সেই ব্যক্তি ভাগ্যবান হয়। আমার বিশ্বস্ত তেমন বন্ধুরা আমাকে ভালোভাবেই চেনে। তারা জানে, আমি কোথা থেকে এসেছি, তবে বাবা মায়ের বিচ্ছেদ একটা বড় প্রভাব ফেলে ঠিকই। আমার মাকে একা একাই সাতটি মেয়ে ও এক ছেলেকে বড় করতে হয়েছে।

ক্যাটরিনা কাইফকে শেষ দেখা গেছে জিরো সিনেমায়। সেখানে তার সঙ্গে ছিলেন শাহরুখ খান ও আনুশকা শর্মা। এর পরে তাকে সালমান খানের সঙ্গে ভারত সিনেমায় দেখা যাবে তাকে। ভারত সিনেমার পরিচালনা করেছেন আলি আব্বাস জাফর। ৫ জুন সিনেমা হলে মুক্তি পাবে ভারত।

সূত্র : এনডিটিভি

জেডএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com