ইউটিউব থেকে কুসুমের ‘নেশা’ সরাতে নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৮ এএম, ১৩ আগস্ট ২০১৭

দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কুসুম শিকদারের নতুন একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হয় গত বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট)। ‘নেশা’ শিরোনামের গানটির কথা লেখার পাশাপাশি কণ্ঠও দিয়েছেন তিনি। এই ভিডিওটি নির্দেশনা দিয়েছেন যৌথভাবে শুভ্র খান ও শ্রাবণী।

এতে কুসুমের সঙ্গে মডেল হয়েছিলেন সুজন। খোলামেলা উপস্থিতি ও গানের কথাগুলোকে অশ্লীল দাবি করে ভিডিওটি নিয়ে সমালোচনা করেন অনেক শ্রোতা ও দর্শক।

অবশেষে সেই জের ধরে ‘নেশা’ শিরোনামে গানের মিউজিক ভিডিওটি ইউটিউব থেকে সরিয়ে নিতে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। রোববার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আফতাব উদ্দিন সিদ্দিকী মেইল, ডাক ও কুরিয়ার যোগে এ নোটিশ পাঠান। সেখানে বলা হয়েছে, গানটির কথা বেশ উত্তেজক। সমাজে এর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। তাই ভিডিওটি যেন আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সরানো হয়। না সরালে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গানটির প্রকাশক ‘বঙ্গ’সহ গানটির মডেল কুসুম সিকদার ও খালেদ হোসাইন সুজনকে আইনি নোটিশটি পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে বিটিআরসি চেয়ারম্যান, তথ্য ও যোগাযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব, সংস্কৃত মন্ত্রণালয় সচিব, তথ্যসচিবকেও নোটিশ পাঠানো হয়।

নোটিশে বলা হয়, নেশা ভিডিওটি শুরুই হয় চোখে আমার তোমার নেশা, শ্বাসে আমার তোমার নেশা, সারা দেহে তোমার নেশা, রগে রগে তোমার নেশা, তোমায় পান করে....জ্ঞান হারাই, হই মাতাল’ এমন ‘উত্তেজক’ কথার আবৃত্তি দিয়ে। তারপর একের পর এক আপত্তিকর, যৌন উত্তেজক ও অশ্লীল দৃশ্য।

নোটিশে আরও বলা হয়, ভিডিওটিতে ৫টি শাওয়ারের দৃশ্য, ৭টি সুইমিং পুলের দৃশ্য, ১টি শয্যাদৃশ্য ও ৩টি চুম্বন দৃশ্য রয়েছে। গানের কথার সঙ্গে এসব দৃশ্যের কোনো মিল বা সংযোগ নেই। নিতান্তই গানকে দ্রুত জনপ্রিয় করার সস্তা রাস্তা হিসেবে ওই সব দৃশ্য সংযোজন করা হয়েছে।

এমনকি ভিডিওটির কভার ছবিও অত্যন্ত অশ্লীল এবং আপত্তিকর। এ ধরণের অশ্লীল ভিডিও তৈরি প্রকাশনা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা এবং পর্নোগ্রাফি আইন, ২০১২ এর ৮ ধারামতে দণ্ডনীয় অপরাধ।

নোটিশে বিটিআরসি চেয়ারম্যান, তথ্য ও যোগাযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব, সংস্কৃত মন্ত্রণালয় সচিব, তথ্যসচিবকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ‘নেশা’ ভিডিওটি সরানোর বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়।

একই সঙ্গে ইউটিউব ও অনলাইনে মিউজিক ভিডিও’র নামে শরীর সর্বস্ব ও অশ্লীল ভিডিও তৈরি ও প্রকাশনা মনিটরিং, রোধ ও বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং আগামী ১ মাসের মধ্যে বর্তমানে অনলাইনে বিদ্যমান অশ্লীল ভিডিওগুলো সরানোর অনুরোধ করা হয়।

প্রসঙ্গত, কুসুম শিকদারকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিলো গেল রোজা ঈদের কিছু নাটকে। আবারও তিনি আসছে কোরবানি ঈদে হাজির হবেন বেশ কিছু বৈচিত্রময় গল্প আর চরিত্র নিয়ে। এই অভিনেত্রীর মুক্তি পাওয়া সর্বশেষ চলচ্চিত্রটি ছিলো ‘শঙ্খচিল’।

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় গৌতম ঘোষ পরিচালিত ছবিটিতে কুসুম অভিনয় করেছিলেন কলকাতার বিখ্যাত অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী চরিত্রে। দুই বাংলাতে মুক্তি পাওয়া ছবিটিতে অভিনয় করে বেশ প্রশংসিত হয়েছিলেন কুসুম শিকদার।

এফএইচ/আরএস/এলএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :