পজিশন কেউ দেয় না, তৈরি করে নিতে হয় : শাকিব খান

নাহিয়ান ইমন
নাহিয়ান ইমন , বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:২৩ এএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ১০:৩৮ এএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৭
ছবি : মাহবুব আলম

ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘নোলক’ নামের একটি ছবিতে। নবীন নির্মাতা রাশেদ রাহার পরিচালনায় ছবিতে শাকিবের নায়িকা থাকছেন ববি। বর্তমানে তিনি উত্তম আকাশের পরিচালনায় ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়্যা’ ছবির শুটিং করছেন ময়মনসিংহে। ছবিতে তার বিপরীতে আছেন বুবলী। শাকিব কথা বললেন তার সাম্প্রতিক ব্যস্ততা নিয়ে। লিখেছেন নাহিয়ান ইমন

নতুন পরিচালকদের সঙ্গে আপনাকে বেশি কাজ করতে দেখা যাচ্ছে। বিশেষ কোনো কারণ আছে?
নতুনরা যুগের চাহিদা ও দর্শকদের রুচিকে প্রাধান্য দিতে পারে। সিনেমা যুগের সৃষ্টি, যুগ সিনেমার সৃষ্টি করে না। সিনেমার মাধ্যমে মানুষের ফ্যাশন আসে। নতুনরা এ বিষয়টি ধরতে পারেন। তাছাড়া তারা স্টাডি করছে। ভালো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া করে আসছে। নতুন নির্মাতাদের মাধ্যমে আগামীতে বাংলা সিনেমা অনেক দূর যেতে পারবে। তাই আমি নতুন নির্মাতাদের ওপর ভরসা রাখছি। নতুন নির্মাতাদের মধ্যে আমার ভবিষ্যৎ দেখতে পাচ্ছি।

ইন্ডাস্ট্রিতে শিল্পী সংকট। আপনি কী একমত?
ইন্ডাস্ট্রিতে যারা রয়েছে তাদের সঠিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে না। তাদেরকে সঠিকভাবে ব্যবহার করা হলে শিল্পী সংকট কেটে যাবে। নিজেরা নিজেদের মধ্যে মন কষাকষি না করে কাজটা যদি ভালোবেসে করা যায় তবে ভালো কাজ বেরিয়ে আসবে। দিনশেষে আমাদের দর্শকরা কিন্তু ভালো কাজ চায়।

শাকিব খানের পজিশন অনেক সংগ্রামের। সবাই এখানে আসতে চায়। তাদের জন্য পরামর্শ.....
কেউ পজিশন দেয় না, নিজের পজিশন নিজেই তৈরি করে নিতে হয়। আজকের শাকিব খান তো একদিনে তৈরি হয়নি। অনেক বাধা, অনেক বিপত্তি অতিক্রম করেই আজকের শাকিব খান। যতই বাধা এসেছে আমার হাল ছাড়িনি। কঠিন মুহূর্তেও কাজটাকে প্রাধান্য দিয়েছি। যারা শাকিব খান হতে চায় তাদের বলবো ভালো কাজের বিকল্প নেই। দর্শকদের মনে ঠাঁই পেতে হলে ভালো কাজ করতে হবে।

Shakib Khan

আপনার মধ্যে ইদানীং যৌথ প্রযোজনার ছবি এবং কলকাতা প্রীতি দেখা যাচ্ছে। কেন?
এটা একেবারেই ভুল কথা। আমার কাছে সবার আগে নিজের বাংলাদেশ। আমার অভিনীত যৌথ প্রযোজনার ‘শিকারী’ এবং ‘নবাব’ নামে মাত্র দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। আর ‘মাস্ক’ নামে আরেকটি ছবির কাজ করছি। এছাড়া বাকি সবগুলো ছবির কাজ কিন্তু বাংলাদেশের। শাপলা মিডিয়া, হার্টবিট প্রডাকশন, আমার নিজের এসকে মুভিজ থেকে অনেকগুলো ছবি আগামীতে আসছে। আরো কিছুদিন পর সবার মধ্যে এ ধারণা পাল্টে যাবে।

বাংলা সিনেমা নিয়ে আপনি কোন স্বপ্নটা রোজ দেখেন?
সিনেমা নিয়ে সবসময় স্বপ্ন দেখেছি। আমার বাকি জীবনের স্বপ্নটাও সিনেমা নিয়েই। এমন একদিন আসবে যখন বিশ্বের বড় বড় দেশে আমাদের দেশের সিনেমা মুক্তি পাবে। বিমান থেকে নেমেই, শপিং মলে, কিংবা বিশ্বের উন্নত দেশের রাস্তায় বের হলেই আমাদের বাংলা সিনেমার পোস্টার দেখা যাবে। সেসব দেশে আমাদের ছবি চলবে। আশার কথা হলো গেল বছর থেকেই সেই পথে হাঁটছি আমরা।

এনই/এএল

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :