আজাদ ও নাদিয়ার পার্টনারশিপ

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৩৭ এএম, ১১ মার্চ ২০১৮

সামনে পহেলা বৈশাখ! এছাড়াও রয়েছে ঈদুল ফিতর। এসব উপলক্ষকে সামনে রেখে চলছে নাটক নির্মাণের কাজ। রাজধানী উত্তরার প্রায় সবগুলো শুটিং হাউজই এখন শুটিংয়ে ব্যস্ততামুখর হয়ে উঠেছে। এর মধ্যে উত্তরার লাবনী শুটিং হাউজে দেখা গেলো নতুন একটি ধারাবাহিক নাটকের শুটিংয়ের ব্যস্ততা। হাউজের বাহিরে লাইটের ঝকঝকানি দেখে না বুঝার উপায় নেই যে এখানে শুটিং হচ্ছে। গেইটের বাহিরে কিছু মানুষ দাড়িয়ে উঁকি দিয়ে দেখছে ভিতরে কি হচ্ছে। ভিতরে যেতেই দেখা গেলো ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নাদিয়া নদী একটি ফাইল হাতে তার বস মডেল ও অভিনেতা একে আজাদ এর সামনে বসে আছেন ফাইলে স্বাক্ষরের জন্য।

চারিদিকে অনেককিছুই ঘটতে দেখা যায় যেমন- ঘুষ নেওয়া,ইভটিজিংসহ আরো অনেক কিছু। কিন্তু এসব বিষয়ের সঠিক প্রতিকার যেনো আজও মিলে না। কর্পোরেট অফিসসহ সব জায়গায় চলে অনৈতিক কাজ। এ ধরনের গল্পে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিকল্পে বেশ কয়েকটি পর্বে নির্মিত হচ্ছে নতুন ধারাবাহিক 'পার্টনারশিপ'। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করছেন নাজমুল হুদা ইমন।

এ কে আজাদ বলেন, একটি কর্পোরেট অফিসের অফিসার চরিত্রে কাজ করছি যে কিনা সৎ ও নিষ্ঠাবান। কিন্তু অফিসের কিছু লোক আমার এ সততাকে পছন্দ করেন না,তারা আমাকে ঘুষ নেওয়ার বিষয়ে পরামর্শ দেয়। গল্প ও চরিত্রটা বেশ মজার। ভালো লাগছে কাজ করে।

নাদিয়া নদী বলেন, আমি একটি ইনসিওরেন্স কোম্পানির এমপ্লয়ী। অফিসিয়াল কাজে আজাদের সঙ্গে পরিচয়। আজাদের সঙ্গে একটা সময় বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক হয়। এর বেশি আর কিছু বলবো না। বাকীটা দর্শকরা দেখে নিবে।

আজাদ-নাদিয়া নদী ছাড়াও এ নাটকে আরো অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম,রোজী প্রমুখ। আগামি মাস থেকে নাটকটি এটিএন বাংলা চ্যানেলে প্রচারিত হবে বলে জানা যায় নির্মাতা সূত্রে।

আইএন/এমএবি/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]