নায়ক রাজের স্মরণে এফডিসিতে কোরআন খতম

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৬ পিএম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নায়ক রাজ রাজ্জাক এর ১ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার এফডিসিতে কোরআন খতম ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। গেল বছর ২১ আগস্ট না ফেরার দেশে চলে যান এই কিংবদন্তি নায়ক।

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বলেন,‘ গেল ২২ আগস্ট ছিল ঈদুল আজহা। ঈদের সময় হওয়ায় অনেক শিল্পীরা ঢাকার বাইরে ছিলেন। তাই আমরা সময় নিয়ে আজ এই আয়োজন করেছি। একজন মানুষ পৃথিবী থেকে বিদায় নিলে তার জন্য দোয়া করা ছাড়া আমাদের আর কিছুই করার থাকে না। সবাই আমাদের প্রিয় নায়কে জন্য দোয়া করবেন। তিনি যেন ওপারে অনেক ভালো থাকেন।’

মৃত্যুকালে নায়ক রাজের বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। ষাটের দশকের মাঝের দিকে চলচ্চিত্র অভিনেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন নায়করাজ রাজ্জাক। ষাটের দশকের বাকি বছরগুলোতে এবং সত্তরের দশকেও তাকে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্পের প্রধান অভিনেতা হিসেবে বিবেচনা করা হত।

তার পুরো নাম আব্দুর রাজ্জাক। ডাক নাম রাজু, রাজ্জাক, রাজা। তিনি ১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি কলকাতার টালিগঞ্জের নাগতলায় জম্ম গ্রহন করেন। তার পিতার নাম আকবর হোসেন এবং মাতার নাম নিসারুন নেস। রাজ্জাকের তিন ভাই তিন বোন তাদের মধ্যে তিনি ছোট।

তিনি সর্বপ্রথম কলকাতার শিলালিপি নামে একটি ছবিতে অভিনয় করেন। তিনি ১৯৬২ সালে খায়রুন নেসাকে (লক্ষ্মী) বিয়ে করেন। ১৯৬৪ সালে তিনি প্রথম ঢাকায় আগমন করেন তিন পুত্র (বাপ্পারাজ, বাপ্পি, সম্রাট) দুই কন্যা (শম্পা, ময়না) এবং স্ত্রী খায়রুন নেসাকে নিয়ে কলমাপুর বসতি স্থাপন করেন।

রাজ্জাক নায়ক হিসাবে প্রথম বেহুলা ছবিতে অভিনয় করেন। তার সর্বপ্রথম প্রযোজিত ছবি আকাঙাক্ষা এবং পরিচালক হিসাবে প্রথম ছবি অনন্ত প্রেম, এই পর্যন্ত তার অভিনিত মোট ছবির সংখ্যা প্রায় ৫০০। রাজ্জাকের সেরা প্রাপ্তি ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হওয়া। তার খ্যাতি নায়ক রাজ রাজ্জাক।

এমএবি/এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :