পপিকে উদ্ধার করলেন আমিন খান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২১ এএম, ৩১ অক্টোবর ২০১৮

আমিন খান ও পপি। দুজনকে ঘিরে আছে গুন্ডারা। নায়িকা পপিকে বাঁচাতে লড়ে যাচ্ছেন দুই নায়ক। হুট করে পুলিশের আগমন। এসেই তারা বন্দুক তাক করে আমিন খানের দিকে।

‘সাহসী যোদ্ধা’ সিনেমার শেষ দৃশ্যের শুটিংয়ে এমনটাই দেখা গেল মঙ্গলবার সন্ধ্যায়। সাধারণত শেষ দৃশ্যে দেখা যায় ভিলেনকে আটক করে পুলিশ। তবে আমিন খানকে কেন বন্দি করতে চায় পুলিশ? কৌতূহল মেটালেন নায়ক নিজেই।

আমিন খান বলেন, ‘এই ছবিতে আমিই ভিলেন চরিত্রে হাজির হবো। অনেক চমক আছে ছবিটিতে। খুব আনন্দ নিয়ে এই সিনেমায় কাজ করছি।’

ঢাকাই সিনেমার এই দুই তারকা অনেকদিন পর জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন ‘সাহসী যোদ্ধা’ ছবিতে। কমল সরকারের গল্প ও চিত্রনাট্যে এটি পরিচালনা করছেন নির্মাতা সাদেক সিদ্দিকী।

মঙ্গলবার এফডিসির কালারল্যাবে শুটিংয়ে অংশ নেন আমিন ও পপি। তাদের সঙ্গে ছিলেন চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা। চারজনকেই দেখা গেল একশানের পোশাকে।

আলাপকালে পরিচালক সাদেক সিদ্দিকী জানান, ছবিটির শেষ লটের শুটিং চলছে। শেষদিকের মারপিটের দৃশ্যধারণ হচ্ছে। আগামীকাল শুটিং করলেই ক্লোজ হবে ক্যামেরা। এরপর কিছু গানের শুটিং হবে কেবল। সেগুলো দেশের বাইরে হতে পারে।

a

চিত্রনায়িকা পপি বলেন, ‘ছবিতে আমি পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করেছি। বেশ চ্যালেঞ্জিং একটা চরিত্র। তবে অভিনয়ের অনেক সুযোগ আছে। ভিলেন হলেও আমার নায়ক আমিন খান। দর্শক ছবিটি উপভোগ করবেন।’

চিত্রনায়ক ইমন বলেন, ‘ছবিতে আমি আর শিরিন শিলা জুটি বেঁধে অভিনয় করেছি। আমরা দুজনই কাস্টমস অফিসার চরিত্রে আছি। ছবিতে দর্শকদের জন্য চমক আছে, ক্লাইমেক্স আছে। বেশ কিছু শ্রুতিমধুর গানও পাবেন দর্শক।’

এই ছবি নিয়ে সাফল্যের প্রত্যাশী শিরিন শিলাও। তিনি জানান, ছবিতে পপির ছোট বোন তিনি। কাজ করেন কাস্টমস অফিসে। ইমনের সঙ্গে তার মন দেয়া নেয়ার সম্পর্ক। বেশ উপভোগ্য একটি চরিত্র।

এদিকে পরিচালক জানালেন, আনন্দবাজার মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘সাহসী যোদ্ধা’ ছবিটি আগামী বছরের শুরুর দিকে প্রেক্ষাগৃহে আসবে।

এলএ/বিএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :