এক চলচ্চিত্রে তিন সুপারস্টার

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৪০ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৯

দুজন আপাদমস্তক অভিনেতা। আরেকজন গানের ভুবন থেকে অভিনয়ে এসে বাজিমাত করেছেন। তারা হলেন অপূর্ব, আফরান নিশো ও তাহসান খান। নাটক-টেলিছবিতে তিনজনই সুপারস্টার। তাদের নিয়ে কোনো আয়োজন মানেই দর্শকের বাড়তি আগ্রহ।

ইউটিউব চ্যানেলের রাজত্ব যখন ক্রমেই আধিপত্য তৈরি করছে তখন ইউটিউবের দর্শকের রুচির সাথে পাল্লা দিতে না পেরে কমছে অনেক জনপ্রিয় তারকার চাহিদা। অন্যদিকে জনপ্রিয়তা বাড়ছে অনেকের। বাড়তির তালিকায় প্রধান তিনটি নাম এই তিন তারকার। ইউটিউবে তাদের অভিনীত কাজগুলোকে লুফে নিচ্ছেন দর্শক।

এই তিন তারকাকে একসঙ্গে দেখার ইচ্ছেটা কার না হয়? কিন্তু বাজেটের আকালের এই দুঃসময়ে নির্মাণ যখন নানাভাবে প্রভাবিত হচ্ছে তখন সময়ের সেরা দামি তিন তারকাকে একফ্রেমে দেখাটা অনেক দুঃস্বপ্নই। সেটাই পূরণ করে দেখালেন ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ খ্যাত নির্মাতা শিহাব শাহীন।

একটা সময় তারকাবহুল এক ঘণ্টার নাটক ও টেলিছবি অনেক নির্মাণ হতো। চলচ্চিত্রেও দেখা যেত দুই-তিনজন সুপারস্টার নায়কেরা একসঙ্গে। তাদের সঙ্গে থাকতেন ডাকসাইটে নারী অভিনেত্রীরাও।

কিন্তু সময়ের স্রোতে বাজেটের সংকট প্রকট হয়েছে। কোনো রকমে প্রধান দুটি প্রেমিক-প্রেমিকা চরিত্র নিয়ে শেষ করা হয় গল্প। হোক সে ছোট কিংবা বড় পর্দার নির্মাণ। সেইদিক থেকে তারকাবহুল নির্মাণে বেশ বড় একটা চমক দেখাতে পেরেছেন তিনি।

তার পরিচালিত নতুন ওয়েব ফিল্ম ‘দ্বিতীয় কৈশোর’-এ প্রথমবারের মতো একসাথে অভিনয় করেছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, আফরান নিশো ও তাহসান খান। এটি প্রযোজনা করেছে গুড কোম্পানি। তিন তারকাকে ঘিরে এরইমধ্যে আলোচনার শীর্ষে রয়েছে অনলাইনবাসীদের জন্য নির্মিত এই চলচ্চিত্রটি।

নির্মাতা জানান, আগামী ২৩ জানুয়ারি থেকে অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ‘বায়োস্কোপ’- এ দেখা যাবে ৬০ মিনিট দৈর্ঘ্যের ‘দ্বিতীয় কৈশোর’।

ত্রিশের কোঠায় থাকা তিন তরুণের ভিন্নধর্মী সঙ্কটের গল্প নিয়ে এগিয়েছে ওয়েব ফিল্মটির কাহিনি। জীবনকে তারা কিভাবে দেখেন এবং প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির নানান হিসেবের বিভিন্ন ঘটনা গল্পটিতে প্রাধান্য পেয়েছে।

Apurba

পরিচালক শিহাব শাহীন এ ওয়েব ফিল্ম নিয়ে বলেন, ‘এই তিন তারকাকে একসঙ্গে পাওয়া দুরূহ হলেও গল্পের প্রয়োজনেই প্রথমবারের মতো একসঙ্গে তাদেরকে নিয়ে কাজ করছি। নির্মাণের দিক দিয়ে কাজটি করা হয়েছে চলচ্চিত্রের আদলে। নির্মাণ, গল্প ও অভিনয় সবকিছুতেই রয়েছে চলচ্চিত্রের আবহ।

তাছাড়া বিনোদনের ক্ষেত্রে ওয়েব প্ল্যাটফর্মগুলোর ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তাই নতুন ধরনের আইডিয়া ও কন্টেন্ট নিয়ে কাজ করার জন্য আমাদের উৎসাহিত করছে। প্রেম-ভালোবাসা ও জীবন দর্শনের মজাদার ও উপভোগ্য দিক নিয়ে নির্মিত নতুন ধরনের কাজটি আশা করি দর্শকপ্রিয়তা পাবে।’

তিন তারকার প্রথমবার একসাথে কাজ করার প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘আমরা তিনজনই একসঙ্গে অভিনয় করতে পারছি, এটা আমার কাছে দারুণ একটি ব্যাপার। বিশেষ করে, আমাদের তিনজনের মধ্যে পর্দার বাইরেও রয়েছে চমৎকার বন্ধুত্ব। শিহাব শাহীনের মতো অভিজ্ঞ একজন পরিচালকের সাথে কাজ করার কারণে তা এক নতুন মাত্রা পেয়েছে।’

অভিনেতা আফরান নিশো বলেন, ‘অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মগুলো এক ধরনের আর্কাইভ এর মতো। তবে কাজটি কতবার দেখা হলো বা কতজন দর্শক দেখলেন সেই সংখ্যাটিই সেই কাজটির মান নির্ণায়ক নয়। এসব প্ল্যাটফর্মের সংখ্যা বাড়ছে, কাজের পরিমান বাড়ছে, সেইসাথে দর্শকের সংখ্যাও।

এসবই আমাদের জন্য আশার বিষয়। আমি বিভিন্ন ধরনের চরিত্র করতে পছন্দ করি, সে কারণে এই কাজটি করে যথেষ্ট আনন্দ পেয়েছি।’

এদিকে অভিনেতা তাহসান খান বলেন, ‘সময়ের বিবর্তনে বড় পর্দা ও টেলিভিশনের পরে এখন মোবাইল ফোনের পর্দায় চলে আসছে উন্নতমানের কন্টেন্ট, যার রয়েছে অন্যধরনের আবেদন। ম‚ল বিষয়টি হচ্ছে, কন্টেন্ট বা বিষয়বস্তু যদি আকর্ষণীয় হয়, দর্শক তা দেখবেই এবং প্রযোজনা ও বিজ্ঞাপন থেকে শুরু করে অন্যান্য আর্থিক অনুষঙ্গগুলোর ব্যবস্থাপনা আরো ভালো হবে।’

জানুয়ারির শুরু থেকে মাঝামাঝি রাজধানীর উত্তরার বিভিন্ন শুটিং লোকেশনে কাজ করেছেন এ ওয়েব ফিল্মের কলাকুশলীরা। তিন তারকার পাশাপাশি ওয়েব ফিল্মটিতে আরও অভিনয় করেছেন সানজীদা প্রীতি, রাইসা অর্পা, নাজিয়া হক অর্ষা, রিফাত জাহান প্রমুখ।

এলএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]