বিশ্বকাপে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে যা বললেন জয়া আহসান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৪৯ পিএম, ০২ জুন ২০১৯

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানকে দেখা গেল লন্ডনে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। সেখানে তিনি বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দেন। তার সঙ্গে ছিলেন ক্রিকেটার আবদুর রাজ্জাকও।

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী মঞ্চে জয়াকে দেখতে পেয়ে উচ্ছ্বসিত তার ভক্ত অনুরাগীরা। দেশের প্রতিনিধি হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রিয় তারকাকে দেখতে পেয়ে অভিনন্দিত করেছেন তারা।

তবে বিশ্বকাপ শুরুর আগের দিন লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেসের সামনের সড়ক ‘দ্য মলে’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ক্রিকেট খেলায় অংশ নিয়ে সমালোচনার শিকার হন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে চ্যালেঞ্জে অংশ নেন সাবেক ক্রিকেটার আবদুর রাজ্জাক এবং অভিনেত্রী জয়া আহসান।

তারা দু’জন মিলে করেন সর্বনিম্ন দ্বিতীয় মাত্র ২২ রান। এ নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন অভিনেত্রী জয়া।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই জয়াকে নিয়ে ট্রল করছেন। কারণ প্রতিনিধি হিসেবে ক্রিকেট খেলতে নেমে একটি বলও ব্যাট দিয়ে ছুঁতে পারেননি এই অভিনেত্রী। সেজন্য তাকে নিয়ে চলছে তীব্র সমালোচনা।

তবে সেসব সমালোচনা একদমই গায়ে মাখছেন না এই অভিনেত্রী। বরং পুরো সফরটিকে তিনি ক্যারিয়ারের জন্য একটি চমৎকার সংযোজন বলে দেখছেন। এ নিয়ে তিনি বিস্তারিত মুখ খুলেছেন কলকাতার একটি গণমাধ্যমে। সেখানে জয়া জানান, খেলা নিয়ে যথেষ্ট আগ্রহী তিনি।

জয়া বললেন, ‘আমি লন্ডনে একদিনের জন্য ছিলাম। এখানে আবহাওয়া হঠাৎ করে খারাপ হয়ে গেল। আমি ১৯৯৯ সালের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেও বাংলাদেশ টিমের সঙ্গে একজন অতিথি হিসেবে গিয়েছিলাম। তখন ভিভ রিচার্ডের সঙ্গে দেখা হয়েছিল। এবারও তার সঙ্গে দেখা হলো। তিনি বাংলাদেশের খবর নিলেন।’

রিচার্ডস... আমাকে দেখে বলে উঠল রিচার্ডস, ‘দেখ, কুড়ি বছর হয়ে গেল!’ সত্যি তো! বছর কুড়ি পড়ে। আসলে ’৯৯-এর বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডে দেখেছিলাম ভিভ রিচার্ডসকে। আমি আর ও এক হসপিটালিটি বক্সে বসে সেবার প্রচুর খেলা দেখেছিলাম। আমার মনে আছে, সেবার পাকিস্তানকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। দেখলাম, ভিভের সব মনে আছে।’

মালালাকে দেখলাম। প্রশান্তির মাঝে কী দীপ্তিময়! কত স্বতঃস্ফুর্ত। অনেক কথা হলো আমাদের। আমাকে দেখেই বললেন, ‘আমি জানি আপনি বাংলাদেশের অভিনেত্রী। আপনার অভিনয় দেখেছি।’

এ রকম একটা ঝকঝকে পরিসরে আমি প্রথম ক্রিকেট ব্যাট ধরলাম। ভাবতেও পারিনি কোনো দিন। সত্যি তো, কত পরিশ্রম, লড়াই করে মানুষ এই খেলার জায়গায় পৌঁছায়। ভাবলে এখনও উত্তেজনা হচ্ছে। ও রকম একটা জায়গায় আমি ক্রিকেটের ব্যাট ছোলাম। জীবনের প্রথম ক্রিকেট ব্যাট ধরলাম বিশ্বকাপ ক্রিকেটে। এই মুহূর্তগুলো চলার পথকে বর্ণময় করে তোলে।

জয়া ব্রেট লি-র সঙ্গেও দেখা করেছেন। ব্রেট লি জয়াকে দেখা মাত্র বলেছেন, ‘আপনি চট্টগ্রাম না ঢাকা থেকে?’ ব্রেট লি তো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে চট্টগ্রামের হয়ে খেলেন। ‘খুবই ভালো সময় কাটালাম। আজ আবার কলকাতায় ফিরছি’, বললেন জয়া।

প্রসঙ্গত, এবার বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অংশ নেওয়া সব কটি দেশ থেকে একজন স্পোর্টস ব্যক্তিত্ব আর খেলার বাইরের একজনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। সেই ভাবনা থেকে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের আমন্ত্রণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেন জয়া আহসান।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]